পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেই জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা: ভিসি

একাডেমিক পরীক্ষা
অধ্যাপক ড. মশিউর রহমান  © ফাইল ফটো

কোভিড-১৯ মহামারি পরিস্থিতির কারণে দেশব্যাপী চলছে লকডাউন। আর এ পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলেই জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আটকে থাকা সকল একাডেমিক পরীক্ষা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মশিউর রহমান। সম্প্রতি দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসের সঙ্গে একান্ত সাক্ষাৎকারে তিনি এ তথ্য জানান।

অধ্যাপক ড. মশিউর রহমান বলেন, করোনা মহামারির মধ্যেও আমরা আমরা বসে থাকিনি। যখনই সুযোগ পেয়েছি তখনই আমাদের কার্যক্রম চালিয়েছি।

তিনি বলেন, ইতোমধ্যে আমরা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ১ম বর্ষের শিক্ষার্থীদের শর্তসাপেক্ষে অটো প্রমোশন দিয়েছি। স্নাতক ১ম বর্ষের ভর্তির কার্যক্রম শুরু করেছি। এবার যারা ভর্তি হবে তারা যেন বাসা থেকে বের হতে না হয় সেই ব্যবস্থা করেই ভর্তি কার্যক্রম শুরু করেছি। আমরা সেপ্টেম্বরের মধ্যেই তাদের ক্লাস শুরু করে দিবো। এছাড়াও সম্মান ৪র্থ বর্ষের রেজাল্ট প্রকাশ করা হয়ছে। আর ২য় এবং ৩য় বর্ষ সহ যারা আটকে আছে তাদের পরিক্ষা সুযোগ পেলেই আমরা নিয়ে নিবো।

অনলাইনে পরীক্ষা নেওয়ার কোন চিন্তা আছে কি না জানতে চাইলে তিনি জানান, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রায় ২৮ লাখ শিক্ষার্থী। তাদের বেশির ভাগ শিক্ষার্থী মফস্বলে বসবাস করে। তাদের ডিভাইস সংকট এবং নেটওয়ার্ক সমস্যা থাকতে পারে তাই আমরা অনলাইনে পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হবে না।

দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের পরিপ্রেক্ষিতে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে বন্ধ রয়েছে সব ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এক বছরের বেশি পেরিয়ে গেলেও চালু হয়নি সশরীরে শিক্ষা কার্যক্রম। ফলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। কারণ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অনলাইন ক্লাস নিয়ে ব্যস্ত থাকলেও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সেই সুযোগ নেই। আর আটকে থাকা পরীক্ষাগুলো নিয়েও কোন সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। তাই যত দ্রুত সম্ভব এসব পরীক্ষা নেওয়ার দাবি শিক্ষার্থীদের।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ