যেখানে রাত কেটেছে নর্থ সাউথের চার ট্রাস্টির

যেখানে রাত কেটেছে নর্থ সাউথের চার ট্রাস্টির
  © সংগৃহীত

৩০৩ কোটি ৮২ লাখ টাকা আত্মসাতের মামলায় নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের চার সদস্যের জামিন আবেদন খারিজ করে শাহবাগ থানায় পাঠান হাইকোর্ট। রবিবার তাদের জামিন আবেদনের শুনানি হয়। সেই আবেদন বাতিল করে তাদেরকে শাহবাগ থানা পুলিশের হাতে তুলে দিয়ে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বিচারিক আদালতে নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন উচ্চ আদালত।

পরে রাজধানীর শাহবাগ থানার হাজতে রাত কেটেছে তাদের। বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের চার সদস্য হলেন— এম এ কাশেম, বেনজীর আহমেদ, রেহানা রহমান ও মোহাম্মদ শাহজাহান।

থানা সূত্র জানায়, রাতে আসামিরা তাদের পরিবারের কাছ থেকে জামাকাপড় ও ওষুধপত্র নিয়ে হাজতে ঢুকেন। হাজতে তাদের প্রত্যেকের জন্য দেওয়া হয় চেয়ার ও কাঁথা-বালিশ। আসামিরাও হাজতে রাত কাটানোর জন্য জিনিসপত্র নিয়ে আসেন। থানা থেকে তাদের খাবার ব্যবস্থা করা হলেও প্রত্যেকে নিজ নিজ বাসা থেকে চিকিৎসকের ব্যবস্থাপত্র অনুযায়ী রাতের খাবার আনিয়েছেন।

থানা সূত্র আরও জানায়, উচ্চ আদালতের নির্দেশে তাদের হাজতে রাখার কথা। কিন্তু শাহবাগ থানার হাজতখানা অপরিচ্ছন্ন থাকায় পরিচ্ছন্নকর্মীরা রাতেই ডিটারজেন্ট দিয়ে এটি পরিষ্কার করেন। দেওয়া হয় এয়ার ফ্রেশনার। অন্য সব হাজতির সঙ্গেই রাখা হয় তাদের। মহিলা সেলে রাখা হয় রেহানা রহমানকে।

শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মওদুদ হাওলাদার বলেন, আমরা রাত ১১টার দিকে আদালত থেকে কাগজ বুঝে পাই। রাতে তারা থানা হাজতে ছিলেন। আদালতের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তাদের আজ সোমবার নিম্ন আদালতে নেওয়া হবে।


x