বাইশমাইল-গণ বিশ্ববিদ্যালয় রিক্সা ভাড়া ১০ টাকা পুনঃনির্ধারণ

বাইশমাইল-গণ বিশ্ববিদ্যালয় রিক্সা ভাড়া ১০ টাকা পুনঃনির্ধারণ
বাইশমাইল-গণ বিশ্ববিদ্যালয় রিক্সা ভাড়া ১০ টাকা পুনঃনির্ধারণ  © টিডিসি ফটো

সাভারের গণ বিশ্ববিদ্যালয় (গবি) সংলগ্ন বাইশমাইল থেকে ক্যাম্পাস পর্যন্ত রিকশা ভাড়া দশ টাকা পুনঃনির্ধারণ করা হয়েছে। এক বা দুই জনের জন্য এ ভাড়া প্রযোজ্য হবে। তবে দুইয়ের অধিক যাত্রী হলে জনপ্রতি পাঁচ টাকা বেশি ভাড়া দিতে হবে।

শনিবার (০২ এপ্রিল) দুপুরে স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. শফি উদ্দিন রিকশা চালকদের সাথে কথা বলে এ ভাড়া নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছে। একইসাথে যাত্রী না চাইলে রিকশায় অতিরিক্ত কাউকে না উঠানোরও নির্দেশ দেয়া হয়।

জানা যায়, এ দিন বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকটি বিভাগের বেশকিছু শিক্ষার্থী রিকশা ভাড়ার ভোগান্তির বিষয়টি নিয়ে জনপ্রতিনিধির কাছে যান। তিনি পুরো বিষয়টি শুনে সরাসরি বাইশমাইলে সরেজমিনে পরিদর্শন করেন। রিকশা চালকদের সাথে কথা বলে অভিযোগের সত্যতা পান।

সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীরা জানান, ঘটনা শুনে মেম্বার রিকশা চালকদের সাথে কথা বলে এক বা দুইজনের ক্ষেত্রে ভাড়া দশ টাকা নির্ধারণ করে দেন। যাত্রী চাইলে রিকশা চালক একা আসতে বাধ্য থাকবেন। এ নিয়ে কারো সাথে খারাপ আচরণ করলে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা কর্মীদের বিষয়টি জানাতে বলা হয়েছে।

আরও পড়ুন: ওয়েবমেট্রিক্সের র‍্যাংকিংয়ে ৭৬তম গণ বিশ্ববিদ্যালয়

এ বিষয়ে সমাজবিজ্ঞান ও সমাজকর্ম বিভাগের শিক্ষার্থী মেহেদী আল হাসান বলেন, বেশ কয়েক মাস যাবত শিক্ষার্থীদের থেকে অতিরিক্ত রিকশা ভাড়া আদায় করা হচ্ছে। শিক্ষকদের সাথেও তারা খারাপ ব্যবহার করেছেন। এখন অতিরিক্ত ভাড়া নিলে আমরা কঠোর পদক্ষেপ নিব।

জানা যায়, পূর্বে এই রুটের ভাড়া দশ টাকা নির্ধারণ করা থাকলেও সম্প্রতি কয়েক মাস যাবত অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা হচ্ছিল। অভিযোগ অনুযায়ী, একই রিকশায় অতিরিক্ত যাত্রী নেওয়া হচ্ছিল এবং জোরপূর্বক জনপ্রতি দশ টাকা করে ভাড়া নিচ্ছিল তারা। ফলে দশ টাকার ভাড়া বিশ/ত্রিশ, এমনকি চল্লিশ টাকা পর্যন্ত নেয়া হচ্ছিল।

সার্বিক বিষয়ে ইউপি সদস্য মো. শফি উদ্দিন বলেন, আমি ভাড়া নির্ধারণ করে দিয়েছি। অতিরিক্ত ভাড়া নিলে তারা অন্য কোথাও চলে যাক। আগে রাস্তা খারাপ ছিল, এখন রাস্তা ভালো করে দিয়েছি। তাহলে কেন বেশি নেবে? আর মেয়ে যাত্রীদের যেন কোনোভাবে হয়রানি করা না হয়।


x