জীবন যুদ্ধে হেরে গেলেন নর্থ সাউথের ছোঁয়া

জীবন যুদ্ধে হেরে গেলেন নর্থ সাউথের ছোঁয়া
সারাবান তহুরা ছোঁয়া  © সংগৃহীত

নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজমেন্ট বিভাগের ছাত্রী সারাবান তহুরা ছোঁয়া। বিশ্ববিদ্যালয়ে থাকাকালীন সময়ে ভালোই চলছিল সবকিছু তার। কিন্তু হঠাৎ মরণব্যাধি ক্যান্সার সবকিছু যেন ওলট-পালট করে দেয়। দীর্ঘ ৪ বছর মরণব্যাধি এই রোগের সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে মৃত্যুর হেরে গেলেন ছোঁয়া।

আজ বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) ভোররাত ৩টা ৪৫ মিনিটে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। ফেসবুকের এক পোস্টে তার স্বামী সাইফুল ইসলাম শাহীন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, তার চিকিৎসার জন্য সবকিছুই করা হয়েছে। এমনটি উন্নত চিকিৎসার জন্য ভারতেও নিয়ে যাওয়ার জন্য সব প্রস্তুতিও সম্পন্ন হয়েছে। কিন্তু হঠাৎ তার শারীরিক অবস্থা অবনতি হলে রাতে একটি হাসপাতারে ভর্তি করা হলে সেখানেই তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন।

জানা যায়,  ২০১৮ সালে পাকস্থলীতে ক্যান্সার ধরা পড়ে ছোঁয়ার। তখন তার পাকস্থলীর ৯৫ শতাংশ কেটে ফেলা হয়েছিল চিকিৎসার স্বার্থে। সেই সঙ্গে ৬টি কেমোথেরাপি দেয়া হয়েছিল। এরপর ২০১৯ সালে তার পাকস্থলীতে আবার একটি টিউমার ধরা পড়ে। পরবর্তীতে সেটারও অপারেশন করা হয়।

ছোঁয়ার চিকিৎসার ব্যয় চালাতে তার মধ্যবিত্ত পরিবার প্রায় নিঃস্ব। এজন্য পরিবার ও নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে তার চিকিৎসার জন্য সবার কাছে সহযোগিতাও চেয়েছিলেন। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ভারতেও নিয়ে যাওয়া হতো। কিন্তু তার আগেই সবাইকে ছেড়ে চলে গেলেন ছোঁয়া।


x

সর্বশেষ সংবাদ