জাতি গঠনে নারীদের অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে: ড. নদভী

আইআইইউসি
অনুষ্ঠানে অতিথিরা  © টিডিসি ফটো

জাতি গঠনে নারীদের অগ্রণী ভূমিকা অপরিহার্য্য। দেশ ও সমাজ সেবায় অগ্রণী ভুমিকা পালন করতে হলে অবশ্যই নারীদের নিজেদেরকে প্রস্তুত করতে হবে, প্রচুর পড়ালেখা করতে হবে, বহুমাত্রিক প্রতিভার বিকাশ ঘটিয়ে সর্বস্তরে অবদান রাখতে হবে। নারীদের শিক্ষক, ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, মেম্বার, চেয়ারম্যান, এম.পি মন্ত্রী হতে হবে। এজন্য জ্ঞান চর্চার কোনো বিকল্প নেই।

রোববার (৭ নভেম্বর) আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রামের দাওয়াহ অ্যান্ড ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের ফিমেল জোনের উদ্যোগে রিসিপশন ও সম্মাননা প্রোগ্রামে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী।

তিনি বলেন, ভারতের বিখ্যাত স্কলার ড. আকরাম নদভী “আল ওয়াফাউ বিআসমাঈন নিসাই” নামক ৪৩ খন্ডে যে বই লিখেছেন সেখানে দশ হাজার মুসলিম মহিলার জীবনী স্থান পেয়েছে যারা ইসলাম ও মুসলমানের জন্য অনেক অবদান রেখেছেন। বর্তমানে যারা দাঈ ইলাল্লাহ হতে চান তাদেরকে পূর্বসূরীদের মতো ভালো মানের আরবি সাহিত্যিক হতে হবে। যেই সাহিত্য দিয়ে কুরআন ও হাদিসের নির্যাসগুলো গণ-মানুষের সামনে তুলে ধরবে।”

এসময় আইআইইউসি ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আবু রেজা নদভী ও ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য ও ফিমেল ক্যাম্পাসের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান মিসেস রিজিয়া রেজা চৌধুরীকে দাওয়াহ বিভাগের ফিমেল জোনের পক্ষ থেকে বরণ ও সম্মাননা প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রফেসর ড. আবু রেজা নদভী আরো বলেন, “দাঈ ইলাল্লাহ হওয়ার আগে সাহিত্যিক হতে হবে। দাঈ ইলাল্লাহগণ দাওয়াতী ময়দানে নামার আগে জ্ঞানে পরিপূর্ণ হতে হবে। আরবি ভাষায় দক্ষতা অর্জন করতে হবে। আগের যুগের দাঈ ইলাল্লাহগণ হাজার হাজার পৃষ্ঠা বই লিখেছেন। ইমাম ইবনে তাইমিয়ার ফাতওয়ায়ে ইবনে তাইমিয়া ৩৭ খন্ডের বিশাল ইলমের ভান্ডার। হাজার হাজার পৃষ্ঠার এই বই যুগ যুগ ধরে দাওয়াতী ময়দানে যুগান্তকারী ভুমিকা পালন করে যাচ্ছে।

আইআইইউসি প্রতিষ্ঠার ইতহাস ও প্রেক্ষাপটকে স্মরণ করে দিয়ে বিশেষ অতিথি মিসেস রিজিয়া রেজা চৌধুরী বলেন, অন্যায়-অসুন্দরের মোকাবেলা পেশীশক্তি নয় বরং বুদ্ধিবৃত্তিক উপায়ে মোকাবেলা করতে হবে। তরবারী নয় জ্ঞানের সৌন্দর্য্য দিয়ে গোটা জগতকে জয় করতে হবে। আইআইইউসির দাওয়াহ বিভাগের ছাত্রীরা এক্ষেত্রে অগ্রণী ভুমিকা পালন করবে বলে তিনি দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

দাওয়াহ বিভাগের চেয়ারম্যান আ.ফ.ম নূরুজ্জামান এর সভাপতিত্বে ও প্রভাষিকা জাকিয়া বিনতে আলম হান্নার সঞ্চালনায় উক্ত প্রোগ্রামে আরো বক্তব্য রাখেন শরীয়াহ অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. শাকের আলম শওক, প্রফেসর ড. শাফী উদ্দীন মাদানী, সহযোগী অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আমিনুল হক, প্রভাষিকা মিসেস উম্মে সায়মা তাজকিয়া ও জাকিয়া বিনতে আলম হান্না প্রমুখ। প্রোগ্রামে দাওয়াহ বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান জনাব শাহ জালাল মাদানী, প্রভাষক আব্দুর রহীম ও ড. সাউদ বিন মুহাম্মদ, সালমা বিনতে শফিক উপস্থিত ছিলেন।

কুরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হয়। দাওয়াহ বিভাগের পক্ষ থেকে প্রধান অতিথি, আইআইইউসি ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আবু রেজা নদভী এম.পি মহোদয় ও বিশেষ অতিথি, আইআইইউসি ফিমেল ক্যাম্পাসের চেয়ারম্যান মিসেস রিজিয়া রেজা চৌধুরীকে ফুলের তোড়া, সম্মাননা ক্রেস্ট ও মানপত্র প্রদান করে সম্মানিত করা হয়। অনুষ্ঠানের শেষাংশে দাওয়াহ বিভাগের মেধাবী ছাত্রীদের মাসিক স্কলারশীপ প্রদান করা হয়। দাওয়াহ বিভাগের চেয়ারম্যান আ.ফ.ম নূরুজ্জামান অনুষ্ঠানে আগত সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, প্রফেসর ড. আবু রেজা নদভী ও মিসেস রিজিয়া রেজা চৌধুরী আমাদের সম্পদ। তাঁদের গতিশীল নেতৃত্বে আইআইইউসি আরো এগিয়ে যাচ্ছে। আল্লাহ তাদের মাধ্যমে মুসলিম উম্মাহর আরো বেশী খেদমত আঞ্জাম দিক সেই দোয়া করছি।


মন্তব্য

x

সর্বশেষ সংবাদ