সেহেরীনের মৃত্যুর পর সেই নালার পাশে উঠলো দেয়াল

সেহেরীনের মৃত্যুর পর সেই নালার পাশে উঠলো দেয়াল
চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের অনুরোধে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ এই দেয়াল নির্মাণ করেছে বলে জানা গেছে  © সংগৃহীত

বিশ্ববিদ্যালয়ছাত্রীর শেহেরীন মাহমুদ সাদিয়ার মৃত্যুর পর উন্মুক্ত নালার পাশে ইটের দেয়াল তৈরি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) রাতে এই দেয়াল নির্মাণ করা হয়। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের অনুরোধে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ এই দেয়াল নির্মাণ করেছে বলে জানা গেছে।

সিটি করপোরেশন ও সিডিএ সূত্র জানায়, নালার মালিকানা নিয়ে পাল্টাপাল্টি বিরোধ থাকলেও বৃহস্পতিবার সেখানে নিরাপত্তাবেষ্টনী দেওয়ার উদ্যোগ নেয় সিটি করপোরেশন। পরে সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে সিডিএর প্রকৌশলীদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। এরপর নালার পাশে নিরাপত্তাবেষ্টনী নির্মাণের সিদ্ধান্ত হয়।

এর আগে, গত সোমবার রাত সাড়ে ১০টায় চট্টগ্রাম নগরের আগ্রাবাদে শেখ মুজিব সড়কের সঙ্গে যুক্ত নালায় পড়ে তলিয়ে যান আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রামের (আইআইইউসি) কম্পিউটারবিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের ছাত্রী সেহেরীনে মাহমুদ সাদিয়া। পরে তাকে ৭০ ফুট গভীর থেকে উদ্ধার করা হয়।

পড়ুন: নালার ওপর ছিল না স্ল্যাব, ৭০ ফুট গভীরে তলিয়ে যায় সেহেরীন

এছাড়া গত তিন মাসে উন্মুক্ত খাল ও নালায় পড়ে চারজনের মৃত্যু হয়েছে। নগরের মুরাদপুরে চশমা খালে তলিয়ে যাওয়া ছালেহ আহমেদের (৫০) খোঁজ পাওয়া যায়নি। এভাবে একের পর এক মৃত্যুর ঘটনায় নগরবাসীর মধ্যে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়।

মাজার গেইট এলাকার বাসিন্দা মো. ফারুক বলেন, ‘নালায় নিরাপত্তা বেষ্টনী দেওয়া তাদের দায়িত্ব। এটি আগে কেন দেয়নি? আগে দিলে মেয়েটির মৃত্যু হত না। প্রতিটি কাজে মানুষের মৃত্যুর পরই কেন তাদের হুঁশ হয়।’

সিটি করপোরেশনের নির্বাহী প্রকৌশলী বিপ্লব দাশ বলেন, পথচারীদের চলাচলের সুবিধার্থে উন্মুক্ত নালাটির পাশে স্থায়ী নিরাপত্তাবেষ্টনীর উদ্যোগ নেওয়া হয়। দুর্ঘটনার পরদিন বাঁশ ও কাঠ দিয়ে অস্থায়ী বেষ্টনী দেওয়া হয়েছিল। আর স্থায়ী বেষ্টনীর বিষয়ে সিডিএকে অনুরোধ করলে তারা ইতিবাচকভাবে সাড়া দিয়ে বৃহস্পতিবার রাতে তা নির্মাণ করে দেয়।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ

x