বিয়ের তিন মাসের মাথায় লাশ হলেন বিশ্ববিদ্যালয়ছাত্রী মিতু

বিয়ের তিন মাসের মাথায় লাশ হলেন বিশ্ববিদ্যালয়ছাত্রী মিতু
  © সংগৃহীত

বিয়ের তিন মাসের মাথায় মিতু ফকির (২৫) নামে এক অ্যাডভোকেটের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় তার স্বামীকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। নিহত মিতু একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইন বিভাগে লেখাপড়া করেছেন।

শুক্রবার (১৮ নভেম্বর) রাতে রাজধানীর শ্যামপুর থানার করিমুল্লাহ বাগ ইস্টার্ন হাউজিং থেকে দিকে মিতুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ রাত সাড়ে ১১টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) মর্গে পাঠানো হয়।

শ্যামপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. হাসান বলেন, খবর পেয়ে শ্যামপুর থানার ইস্টার্ন হাউজিংয়ের পাঁচ তলার একটি বাসা থেকে ওই অ্যাডভোকেটের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করি। পরে সুরতহাল প্রতিবেদন শেষে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ঢাকা মেডিকেলের মর্গে পাঠানো হয়।

তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় তার স্বামী মিরাজকে আটক করে পুলিশি হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। তার স্বামী জানিয়েছেন, বিয়ের পর থেকেই তাদের মধ্যে পারিবারিক কলহ চলছিল। এই ঘটনায় তিনি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারনা করা হচ্ছে। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

এসআই মো. হাসান বলেন, তারা স্বামী-স্ত্রী দুজনেই অ্যাডভোকেট ছিলেন। নিহতের বাড়ি মাদারীপুর জেলায়। মিতুর বাবা-মা মাদারীপুর থেকে ঢাকা আসছেন। তাদের অভিযোগের ভিত্তিতেই নিহতের স্বামী মিরাজকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। নিহতের বাবা-মা আসলে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


সর্বশেষ সংবাদ