জামালপুরে ৪৬ টি প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা

৪৬ টি প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ
৪৬ টি প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ  © সংগৃহীত

বন্যা পরিস্থিতি অবনতির ফলে জামালপুরে ৪৬ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। মাধ্যমিক স্কুল ও কলেজে পানি উঠলেও বেশকয়েকটি চালু রয়েছে। তবে যে কোনো সময় বন্ধ হয়ে যেতে পারে।

জামালপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) নির্বাহী প্রকৌশলী আবু সাঈদ বলেন, যমুনা ও ব্রহ্মপুত্রসহ সব নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় যমুনার পানি বিপৎসীমার ৪৫ সেন্টিমিটার এবং ব্রহ্মপুত্র নদের পানি বিপৎসীমার ১৭ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, জামালপুরে জেলায় ৯০টি বিদ্যালয়ে বন্যার পানি ঢুকেছে। এর মধ্যে ৪৬টি প্রতিষ্ঠানের পাঠদান বন্ধ রয়েছে। বাকিগুলো কয়েকদিন পর্যবেক্ষণ করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন: জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সময়সীমা বাড়ছে

শিক্ষা অফিস সূত্র আরও জানায়, জেলায় এক হাজার ১৬১টি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ৫৯১টি মাধ্যমিক স্কুল-কলেজ ও মাদরাসা রয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানে নিয়মিত পাঠদান চলে। কিন্তু সম্প্রতি বন্যায় কিছু প্রতিষ্ঠানের পাঠদান বন্ধ রাখা হয়েছে। কিছু প্রতিষ্ঠানে প্রতিবারের মতো বন্যার্তদের আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহার  করা হচ্ছে। 

জেলার ইসলামপুর উপজেলার গুঠাইল উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক বাবলু বলেন, পাহাড়ি ঢলে এ উপজেলার প্রায় সব নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। ২০-২৫ হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। উপজেলার চিনাডুলি ইউনিয়নে তিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মাঠে পানি উঠেছে। সেখানে এখনও পাঠদান চলমান। তবে যে হারে পানি বাড়ছে তাতে কয়েকদিনের মধ্যে প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা ছাড়া উপায় নেই।


x