প্রাথমিকের ক্লাস চলবে সশরীরে

প্রাথমিক বিদ্যালয়
প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ক্লাস  © সংগৃহীত

করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিদিনই বাড়ছে। করোনার এমন ঊর্ধ্বগতি রোধে সরকারের নেয়া বিধিনিষেধের মধ্যেও সীমিত পরিসরে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সশরীরে ক্লাস চলবে বলে জানিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। তবে প্রাক-প্রাথমিকে সশরীরে শ্রেণি কার্যক্রম বন্ধ থাকবে বলে জানায় মন্ত্রণালয়।

সূত্র জানায়, অধিদপ্তর ও মন্ত্রণালয়ের যৌথ সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে বর্তমানে যেভাবে শ্রেণি কার্যক্রম চলছে সেভাবেই চালিয়ে যাওয়ার। সভায় স্কুলপ্রধানদের প্রতিদিন শিক্ষার্থীদের তথ্য পাঠাতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। প্রাথমিকে শিক্ষা কার্যক্রম চলমান থাকলেও প্রাক-প্রাথমিকে সশরীরে শ্রেণি কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। একই সঙ্গে অনলাইনে ক্লাসও চালিয়ে যাওয়ার নির্দেশনা দিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

বর্তমান রুটিন অনুযায়ী স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রতিদিন প্রথম শিফটে ক্লাস শুরু হয় সকাল পৌনে ১০টায়। তিনটি বিষয়ে ৪৫ মিনিট করে পাঠদান চলে। শেষ হয় ১২টা ৫ মিনিটে। তবে শিক্ষার্থীদের সকাল ৯টা থেকে ৯টা ২৫ মিনিটের মধ্যে শ্রেণিকক্ষে ঢুকতে হয়। দ্বিতীয় শিফটে ক্লাস শুরু হয় বেলা ১টা ১৫ মিনিটে। যা শেষ হয় বেলা ৩টা ৪৫ মিনিটে। তবে শিক্ষার্থীরা ক্লাসে ঢোকে দুপুর ১২টা ৩০ মিনিট থেকে ১২টা ৫৫ মিনিটের মধ্যে।

আরও পড়ুন- এইচএসসির ফল প্রকাশের তারিখ চূড়ান্ত হয়নি

সম্প্রতি করোনাভাইরাসের প্রকোপ বেড়ে গেছে কয়েকগুণ। প্রতিদিনই বাড়ছে শনাক্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। দক্ষিণ আফ্রিকার বতসোয়ানা থেকে ছড়ানো করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনে নাকাল পুরো বিশ্ব। বাংলাদেশে প্রথম ওমিক্রন ধরা পড়ে নারী ক্রিকেট দলের দুই সদস্যের। নারী ক্রিকেট দল জিম্বাবুয়ে সফর শেষ করে আসার পরই তাদের শরীরে নতুন ভাইরাসের জীবাণু পাওয়া যায়। বর্তমানে সারাদেশে ৩০ জনের বেশি মানুষের শরীরে এই ভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে।

করোনার প্রকোপ বাড়ায় সরকার নতুন করে ১১টি বিধিনিষেধ আরোপ করেছে। বিধিনিষেধে মাস্ক পরার ক্ষেত্রে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। প্রয়োজনে জরিমানার ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে। এছাড়া স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান চালু রাখা, সনদ দেখিয়ে হোটেলে খাওয়া দাওয়া, সভা-সমাবেশ বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে সরকার। 


x

সর্বশেষ সংবাদ