পরিচ্ছন্নতাকর্মীর বিল না দেওয়ায় শিক্ষার্থী বহিষ্কার

প্রাথমিক
ধুনট উপজেলায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়  © সংগৃহীত

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিচ্ছন্নতাকর্মীর টাকা পরিশোধ না করায় প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে এক শিশু শিক্ষার্থীকে বহিষ্কারের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ওই শিক্ষার্থীর বাবা ১৩ সেপ্টেম্বর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার (টিও) নিকট লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কুঠিবাড়ি গ্রামের আবু হাসান খোকনের মেয়ে মায়িশা সিদ্দীকি মেঘলা ওই বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী। বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর সংখ্যা প্রায় ৫০০ জন। বিদ্যালয় পরিষ্কারের জন্য অস্থায়ীভাবে একজন পরিচ্ছন্নতাকর্মী নিয়োগ করেছেন প্রধান শিক্ষক। ওই পরিচ্ছন্নতাকর্মীর মসিক সম্মানি ভাতা বাবদ প্রত্যেক শিক্ষার্থীদের নিকট থেকে বর্ষিক ১৫০ টাকা করে আদায় করা হয়।

কিন্ত শিক্ষার্থী মায়িশা সিদ্দীকি মেঘলা ওই পরিচ্ছন্নতাকর্মীর ১৫০ টাকা পরিশোধ করেনি। এ কারণে উপবৃত্তির তালিকা থেকে মায়িশা সিদ্দীকি মেঘলার নাম বাদ দিয়ে তাকে বিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

এ বিষয়ে ধুনট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলাম বলেন, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে শিক্ষার্থী ও তার মা-বাবার জন্মসনদ বিদ্যালয়ে জমা না দেওয়ায় এবং এ বিষয়ে আমার সঙ্গে যোগাযোগ না করায় উপবৃত্তির তালিকা থেকে শিক্ষার্থীর নাম বাদ পড়েছে। এ ছাড়া অভিভাবকদের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নিয়ে পরিচ্ছন্নতাকর্মীর জন্য প্রত্যেক শিক্ষার্থীর নিকট থেকে বার্ষিক ১০০ টাকা করে আদায় করা হয়।

ধুনট উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা (টিও) ফেরদৌসী বেগম বলেন, এ ঘটনায় অভিযোগ পেয়েছি। সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা আমিনুল ইসলামকে ঘটনার তদন্ত করে রিখিত প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদন পেলেই ব্যবস্থা নিবো।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ