প্রাথমিক শিক্ষকরা যেভাবে আইডি কার্ড পাবেন

লকডাউন
  © ফাইল ফটো

সরকারি প্রাথমিক শিক্ষকদের আইডি কার্ড তৈরির নির্দেশনা দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর। বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) ‘বিদ্যালয়ভিত্তিক উন্নয়ন পরিকল্পনা’র অর্থ ব্যয় করে আইডি কার্ড তৈরি এই নির্দেশনা দেওয়া হয়। ছবিসহ তৈরি করা রঙিন কার্ডে সই করবেন নিয়ন্ত্রণকারী কর্মকর্তা।

নির্দেশনায় বলা হয়, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের আওতাধীন কর্মরত কর্মকর্তা, শিক্ষক ও কর্মচারীদের দাফতরিক পরিচয়পত্র ওয়েবসাইটে দেওয়া নমুনা অনুযায়ী অভিন্ন হতে হবে।

যেসব নিয়মে আইডি কার্ড তৈরি করতে হবে

ক) ওয়েবসাইটে দেওয়া নমুনা অনুসারে পরিচয়পত্র প্রস্তুত করতে হবে, ফলে সারা দেশে অভিন্ন আকারে আইডি হবে।

খ) প্রধান ও সহকারী প্রধান শিক্ষকদের পরিচয়পত্র ইস্যু করবেন সংশ্লিষ্ট উপজেলা/থানার নির্বাহী কর্মকর্তা।

গ) অফিস প্রধানরা তার অফিসে কর্মরত সকলের এবং প্রযোজ্য ক্ষেত্রে তার অধস্তন অফিস প্রধানদের পরিচয়পত্র প্রদান করবেন।

ঘ) দাফতরিক পরিচয়পত্র ইস্যুর জন্য সংশ্লিষ্ট নিয়ন্ত্রণকারী কর্মকর্তা পরিচয়পত্রের নমুনা প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের ওয়েবসাইট ই-প্রাইমারি স্কুল সিস্টেম থেকে সংগ্রহ করে তার আওতাধীন সকলকে জানাবেন।

ঙ) কর্মরত শিক্ষক, কর্মচারী তার তথ্য ও ছবি নমুনায় সংযোজন করে নিয়ন্ত্রণকারী কর্মকর্তার কাছে দাখিল করবেন।

চ) নিয়ন্ত্রণকারী কর্মকর্তা জাতীয় পরিচয়পত্র এবং শিক্ষক পিন নম্বর সংযোজিত করে পরিচয়পত্রে সই করে ব্যবহারকারীকে প্রদান করবেন।

ছ) পরিচয়পত্র সংরক্ষণ ও ব্যবহার করবেন। কর্মস্থল ও বাসস্থানের বাইরে দৈনন্দিন কাজেও সার্বক্ষণিক পরিচয়পত্রসহ চলাফেরা করবেন।

জ) পরিচয়পত্র তৈরিতে কালার প্রিন্ট ও লেমিনেশন করতে হবে। বিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে স্লিপ ফান্ড এবং অন্য ক্ষেত্রে অফিস আনুষঙ্গিক খাত থেকে খরচ করা যেতে পারে।

এর আগে বুধবার (২১ এপ্রিল) একটি নমুনা পাঠিয়ে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মচারীদের আইডি কার্ড ইস্যুর নির্দেশনা দেয় প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর। তবে কার্ড তৈরির জন্য অর্থ ব্যয়ের বিষয়ে পরিষ্কার করে বলা ছিল না।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ