অস্ট্রেলিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ে বিনা খরচে পড়ার সুযোগ ইউক্রেনের শিক্ষার্থীদের

বিদেশে শিক্ষা
ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন  © প্রতীকী ছবি

রাশিয়ার আগ্রাসন শুরুর পর থেকে প্রায় ৬ হাজার ইউক্রেনীয় শরণার্থীকে অস্থায়ী মানবিক ভিসা দিয়েছে অস্ট্রেলিয়ান সরকার। এদের মধ্যে এ পর্যন্ত প্রায় ১ হাজার ৬০০ জন অস্ট্রেলিয়ায় পৌঁছেছেন। আর মানবিক ভিসা পাওয়াদের মধ্যে অনেকেই ইউক্রেনের শিক্ষার্থী।

ইউক্রেন থেকে পালিয়ে আসা শত শত শিক্ষার্থীকে অস্ট্রেলিয়ার বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে বিনা খরচে অধ্যয়নের সুযোগ দিতে আবেদন জানিয়েছেন দেশটির শিক্ষাবিদরা।

ইউক্রেনীয় শিক্ষার্থীদের স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর বৃত্তি বিবেচনা করার জন্য অস্ট্রেলিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে যে চিঠি দেওয়া হয়েছে, তাতে দেশটির ১৪০ জন শিক্ষাবিদ স্বাক্ষর করেছেন।

চিঠিতে বলা হয়েছে, হাজার হাজার ইউক্রেনীয় শিক্ষার্থী তাদের দেশে পড়াশোনা চালিয়ে যেতে পারছেন না। কারণ তাদের শহরগুলোতে রাশিয়ান সামরিক বাহিনী বোমাবর্ষণ করছে।

এতে আরও বলা হয়, ইউক্রেনে হাজার হাজার মানুষ প্রতিদিন যুদ্ধের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করছে এবং সংঘর্ষ শুরু হওয়ার পর থেকে অনেককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক শিক্ষার্থী রয়েছেন।

ইতোমধ্যে অস্ট্রেলিয়ান ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি (এএনইউ) এবং লা ট্রোব ইউনিভার্সিটি ইউক্রেনীয় শিক্ষার্থীদের নির্দিষ্ট বৃত্তি প্রদানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

এএনইউর এক মুখপাত্র বলেছেন, এ বছরের দুটি সেমিস্টারে ইউক্রেনের শিক্ষার্থীদের জন্য তাদের বৃত্তি প্রোগ্রাম রয়েছে।

রাশিয়ার আক্রমণের আগে ইউক্রেনের কিয়েভে মার্কেটিংয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি শেষ করতে জুলি ট্রাচুক নামের এক শিক্ষার্থীর মাত্র ১ বছর বাকি ছিল। তিনি পালিয়ে এসেছেন অস্ট্রেলিয়ায়। ট্রাচুকের খালা এবং চাচাতো ভাই তাকে অস্ট্রেলিয়ায় পালিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করার আগে তার বাবা-মা তাকে পোল্যান্ডের ওয়ারশে যাওয়ার ট্রেনে তুলে দিয়েছিলেন।

জুলি ট্রাচুক এসবিএস নিউজকে বলেন, পোল্যান্ড, জার্মানি, কানাডা বা অন্য দেশে শিক্ষার্থীরা যদি তাদের পড়াশোনা চালিয়ে যেতে পারেন, তাহলে অস্ট্রেলিয়ায় সেটা আমার জন্য আরও সহজ হবে।


সর্বশেষ সংবাদ