বিশ্ববিদ্যালয় ও বিমান বন্দরের নাম পরিবর্তন করলো তালেবান

তালেবান
ইউনিভার্সিটি অব বুরহানউদ্দিন রাব্বানি  © সংগৃহীত

আফগানিস্তানে একটি সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করেছে তালেবান। রাজধানী কাবুলের ইউনিভার্সিটি অব বুরহানউদ্দিন রাব্বানি থেকে পরিবর্তন করে নতুন নাম রাখা হয়েছে কাবুল এডুকেশন ইউনিভার্সিটি। সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) আনুষ্ঠানিকভাবে এই নাম বদলের ঘোষণা দেওয়া হয়। খবর দ্যা টাইমস অব ইন্ডিয়া’র

তালেবান ক্ষমতায় আসার কিছুদিনের মধ্যেই বিশ্ববিদ্যালটি থেকে বুরহানউদ্দিন রাব্বানির নাম সরিয়ে দিতে উদ্যোগী হয়। আফগান সরকারের উচ্চশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক নির্দেশনায় বলা হয়েছে, বিশ্ববিদ্যালয়গুলো আফগানিস্তানের বুদ্ধিবৃত্তিক সম্পদ। রাজনৈতিক বা জাতিগত নেতাদের নামে এগুলোর নামকরণ করা উচিত না।

তালেবান সরকার বলছে, গত দুই দশকে আফগানিস্তানে ভাষাগত, আঞ্চলিক ও জাতিগত বৈষম্য বিরাজ করেছে। এই বৈষম্যের ভিত্তিতেই জাতীয় পর্যায়ে বিভিন্ন নামকরণ করা হয়েছে।

২০০৯ সালে সাবেক আফগান প্রেসিডেন্ট বুরহানউদ্দিন রাব্বানি নিজ বাড়িতে আত্মঘাতী হামলায় নিহত হলে তার নামে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের নামকরণ করা হয়েছিল। তখনই এই নামকরণের তীব্র প্রতিবাদ হয়েছিল। এই ঘটনা শিক্ষার্থীদের মধ্যে ক্ষোভের সঞ্চার করে যা এক পর্যায়ে ব্যাপক বিক্ষোভে রূপ নেয়। শিক্ষার্থীদের হতাহতের ঘটনাও ঘটে।

এদিকে কাবুলের হামিদ কারজাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরও পুরনো নামে ফিরিয়ে নিয়েছে তালেবান। অর্থাৎ, এটির নাম এখন কাবুল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর।


মন্তব্য