বিশ্ব বন্ধু দিবস আজ

বিশ্ব বন্ধু দিবস আজ
  © প্রতীকী ছবি

বন্ধুত্ব তো তা-ই, যাকে নিক্তি দিয়ে মাপা যায় না। প্রকাশ করা যায় না সংজ্ঞা দিয়ে। মানুষ যুগে যুগেই বন্ধুত্বকে উদ্যাপন করেছে। আজ বিশ্ব বন্ধুত্ব দিবস।  প্রতি বছর আগস্ট মাসের প্রথম রবিবারই পালিত হয় ফ্রেন্ডশিপ ডে। বন্ধু দিবস পালনের মূল শক্তিই হচ্ছে বন্ধুর প্রতি নিঃশর্তভাবে ভালোবাসা, বন্ধুর পাশে থাকা।

বন্ধু এমন একজন মানুষ যাকে মন খারাপ হোক বা ভালো কিছু হোক, আসল খবরটা আগে বন্ধুকেই দেওয়া চাই। যে কথা বাবা, মা, পরিবার পরিজনকে বলতে পারিনা সেই কঠিন কথাও আমরা অনায়াসেই বলে ফেলতে পারি বন্ধুকে।

আসলে বন্ধুত্বকে কোনো নির্দিষ্ট মাপকাঠিতে ফেলা যায় না! বন্ধুত্ব যে কারোরই সঙ্গে হতে পারে। কারোর কাছে বাবা বা মা-ই হয়তো তার প্রিয় বন্ধু, কারোর কাছে তাঁর দাদা, দিদি, ভাই বোনও হয়ে ওঠে প্রানের বন্ধু। আবার অনেক সময় নিজের পিতা-মাতা কেউ বা ছেলে বা মেয়ের কাছে হয়ে উঠতে চান তার বেস্ট ফ্রেন্ড! কারোর কাছে হয়তো বা বন্ধুত্বের সংজ্ঞাটাই আলাদা। আসলে 'বন্ধু' হল আমাদের জীবনে সেই বিশেষ মানুষ, যাদের অনেকসময় চোখ বুজে বিশ্বাস করা যায়, বলে ফেলা যায় এমন অনেক কথা যা আপনি চাইলেও আর কাউকেই বলতে পারবেন না। বন্ধুত্বের এই বিশেষ সম্পর্ককে উদযাপন করার জন্যই ক্যালেন্ডারে দাগিয়ে দেওয়া হয়েছে একটি বিশেষ দিনকে-যাকে চিহ্নিত করা হয়েছে 'ফ্রেন্ডশিপ ডে' বা 'বন্ধুত্ব দিবস' হিসেবে।

বন্ধুত্ব দিবস বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন তারিখে পালন করা হয়। ১৯৫৮ সালের ২০ জুলাই বিশ্ব বন্ধুত্ব দিবসের প্রথম প্রস্তাব করেন ড. আর্টেমিও ব্র্যাচো। ২০১১ সালে ২৭ এপ্রিল জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে ৩০ জুলাইকে অফিসিয়াল ইন্টারন্যাশনাল ফ্রেন্ডশিপ ডে ঘোষিত হয়েছিল। তবে ১৯৩৫ সাল থেকেই বন্ধু দিবস পালনের প্রথা চলে আসছে আমেরিকাতে।

জানা যায়, ১৯৩৫ সালে আমেরিকার সরকার এক ব্যক্তিকে হত্যা করে। দিনটি ছিল আগস্টের প্রথম শনিবার। তার প্রতিবাদে পরের দিন ওই ব্যক্তির এক বন্ধু আত্মহত্যা করেন। এরপরই জীবনের নানা ক্ষেত্রে বন্ধুদের অবদান আর তাদের প্রতি সম্মান জানানোর লক্ষ্যেই আমেরিকান কংগ্রেসে ১৯৩৫ সালে আগস্টের প্রথম রবিবারকে বন্ধু দিবস হিসেবে পালনের সিদ্ধান্ত নেন। এরপর থেকে সারা বিশ্বে আগস্টের প্রথম রবিবারেই বিশ্ব বন্ধু দিবস হিসেবে পালিত হচ্ছে।

তবে যাইহোক, আসলে বন্ধুত্বের উদযাপন তো যেকোনো দিনই করা যায়। কেনই বা একটা বিশেষ দিনকে বেছে নেওয়া আসলে নিছক মজা, আনন্দের পাশাপাশি একটা গোটা দিন বন্ধুর সাথে কাটানোর মজাই আলাদা। আজকের এই কর্ম ব্যস্ততার দিনে পৃথিবী জুড়ে যখন দেখছি সম্পর্কগুলো এক এক করে ভেঙ্গে যাচ্ছে, গণ্ডীগুলো ছোট থেকে আরও ছোট হচ্ছে সেই প্রেক্ষাপটের উপর দাঁড়িয়ে এমন দিনের গুরুত্ব সত্যই আলাদা। আর আজ আবার রবিবার। তাই আজকের দিনটি সকলের কাছে বন্ধুময় হয়ে উঠুক এই কামনাই থাক।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ