করোনাকালে শিক্ষায় বেড়েছে বৈষম্য, কমেছে মান: সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী

অধ্যাপক
অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী  © সংগৃহিত

করোনাভাইরাস মহামারির সংক্রমণ পরিস্থিতিতে একদিকে শিক্ষাখাতে বৈষম্য বেড়েছে অন্যদিকে শিক্ষার মান কমেছে বলে মন্তব্য করেছেন ইমেরিটাস অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী। তিনি বলেছেন, করোনাকালে স্কুল বন্ধ থাকায় সরকার অনলাইন ও দূরশিক্ষণ ক্লাসের আয়োজন করলেও সব শিক্ষার্থী এসব ক্লাসে অংশ নিতে পারে না। করোনায় একদিকে বৈষম্য বেড়েছে অন্যদিকে শিক্ষার মান কমেছে।

সম্প্রতি একটি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের সাবেক এই অধ্যাপক।

আরো পড়ুন শিক্ষার ক্ষতি পোষাতে গতানুগতিক বাজেটে চলবে না: রাশেদা কে চৌধুরী

সাক্ষাৎকারে সিরাজুল ইসলাম বলেন, এই সময়ে ছাত্রছাত্রীদের জীবন থেকে গুরুত্বপূর্ণ সময়ও চলে গেল। শিক্ষার্থীরা স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে যেতে না পেরে ঘরে বসে থেকে অনেকটা মানসিক ক্ষতির মধ্যেও রয়েছে। এসব ক্ষতি পোষাতে শিক্ষায় বাজেট বরাদ্দ বাড়ানোর তাগিদ দিয়েছেন প্রখ্যাত এই শিক্ষাবিদ।

করোনার কারণে শিক্ষার যে ক্ষতি হয়েছে তা কাটিয়ে উঠতে বাজেটে বরাদ্দ বাড়ানোর তাগিদ দিয়ে তিনি বলেছেন, শিক্ষা খাতে যে বরাদ্দ দেওয়া হচ্ছে তা পর্যাপ্ত নয়। বাজেটের মোট ব্যয়ের ২০ শতাংশ শিক্ষায় বরাদ্দ হওয়া উচিত। ইউনেস্কো জিডিপির ৬ শতাংশ শিক্ষা খাতে বরাদ্দের কথা বললেও এর বাস্তব চিত্র আমরা দেখি না। শিক্ষায় বরাদ্দ জিডিপির ন্যূনতম ৩ শতাংশ হওয়া উচিত। এর কম হলে চলবে না। তা ছাড়া শিক্ষার যে ক্ষতি হয়েছে তা কাটিয়ে ওঠা সম্ভব হবে না।


মন্তব্য