এবার প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দিলেন রনি

এবার প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দিলেন রনি
মহিউদ্দিন রনি   © সংগৃহীত

বাংলাদেশ রেলওয়েতে অনিয়ম, দুর্নীতি ও অব্যবস্থাপনার প্রতিবাদে ২০তম দিনের মত আন্দোলন করছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মহিউদ্দিন রনি। আন্দোলনের অংশ হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনায় আওয়ামী লীগের ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে স্মারকলিপি জমা দিয়েছেন মহিউদ্দিন রনি। 

সোমবার (২৫ জুলাই) বিকেল চারটার দিকে ধানমন্ডি আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে উপ-দপ্তর সম্পাদক সায়েম খানের নিকট স্মারকলিপি গ্রহণ দেন। 

স্মারকলিপি গ্রহণ করে সায়েম খান বলেন, ‘আমাদের দল এবং দলের বাইরে কোনো আবেদন যদি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে থাকে, তবে সেটি এখানে জমা দিলে তা আমরা তাকে সরবরাহ করে থাকি। মহিউদ্দিন রনি রেলের অব্যবস্থাপনা নিয়ে একটি স্মারকলিপি আমাদের সবার নেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর দিয়েছেন। আমরা তাকে আশ্বস্ত করতে চাই এই স্মারকলিপিও আমাদের নেত্রী বরাবর পৌঁছে দেব।’

মহিউদ্দিন রনি বলেন, রেলের অব্যবস্থাপনা নিয়ে আমার এবং সারাদেশের মানুষের যে ছয় দফা দাবি সেটি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি দিয়েছি। আশা করি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টি পড়লে এই ছয় দফা দাবিও বাস্তবায়ন হবে।

বাংলাদেশ রেলওয়ের অব্যবস্থাপনা ও দুর্নীতি নিরসনে রেলের মহাপরিচালক ধীরেন্দ্র নাথ মজুমদারকে গত ১৯ জুলাই ৬ দফা দাবি সংবলিত স্মারকলিপি দিয়েছেন মহিউদ্দিন রনি।

আরও পড়ুন: এক বিশ্ববিদ্যালয়ে এক বছরে বিদ্যুৎ বিল ৮৮ লাখ টাকা!

গত ৭ জুলাই থেকে রেলের অব্যবস্থাপনার বিরুদ্ধে ৬ দফা দাবি আদায়ে আন্দোলন করছেন তিনি।

তার দাবিগুলো হলো-

১. টিকিট কেনার ক্ষেত্রে সহজ ডট কম কর্তৃক যাত্রী হয়রানি অবিলম্বে বন্ধ করতে হবে। হয়রানির ঘটনায় তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নিতে হবে।
২. যথোপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার মাধ্যমে টিকিট কালোবাজারি প্রতিরোধ করতে হবে।
৩. অনলাইন-অফলাইনে টিকিট কেনার ক্ষেত্রে সর্বসাধারণের সমান সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করতে হবে।
৪. যাত্রী চাহিদার সঙ্গে সঙ্গতি রেখে ট্রেনের সংখ্যা বৃদ্ধিসহ রেলের অবকাঠামো উন্নয়নে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে।
৫. ট্রেনের টিকিট পরীক্ষক ও তত্ত্বাবধায়কসহ অন্যান্য দায়িত্বশীলদের কর্মকাণ্ড সার্বক্ষণিক মনিটর, শক্তিশালী তথ্য সরবরাহ ব্যবস্থা গড়ে তোলার মাধ্যমে রেল সেবার মান বৃদ্ধি করতে হবে।
৬. ট্রেনে ন্যায্য দামে খাবার, বিনামূল্যে বিশুদ্ধ পানি ও স্বাস্থ্যসম্মত স্যানিটেশন ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে।

রনির ৬ দফার সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে চট্টগ্রাম, রাজশাহী, সিলেট, মৌলভীবাজার, নোয়াখালী, শরীয়তপুর, জামালপুরসহ বিভিন্ন জায়গায় অবস্থান কর্মসূচী পালন করা হয়েছে।


x

সর্বশেষ সংবাদ