বিয়ের দুই মাস পর জানতে পারলো স্ত্রী সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা

বিয়ের দুই মাস পর জানতে পারলো স্ত্রী সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা
অন্তঃসত্ত্বা  © সংগৃহীত

বিয়ের দুই মাস পর জানতে পারলো স্ত্রী সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা। পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।  

এ ঘটনায় মঙ্গলবার (৭ জুন) রাতে ইয়াসিন হাওলাদার (৫০) নামের এক মুদি দোকানির বিরুদ্ধে কলাপাড়া থানায় ধর্ষণ মামলা করেছেন তরুণীর মা।

সূত্রে জান যায়, ওই তরুণীর মা-বাবা প্রতিদিন গভীর রাতে নদীতে মাছ শিকারে যান। এ সুযোগে মুদি দোকানি ইয়াসিন তাদের ঘরে প্রবেশ করে মেয়েটিকে একাধিকবার ধর্ষণ করেন। ধর্ষণের ঘটনা কাউকে বললে তাকে মেরে ফেলার হুমকি দেন। এদিকে গত দুই মাস আগে তরুণীর অন্য জায়গায় বিয়ে হয়।

আরও পড়ুন: মরতে গিয়ে প্রেমিকা ঝাঁপ দিলেও দেননি প্রেমিক! সাঁতরে ফিরে থানায় মহিলা

গত ৪ জুন তার শারীরিক পরিবর্তনের বিষয়টি শ্বশুরবাড়ির সদস্যদের নজরে আসে। তরুণীর মা বলেন, আমার জামাই এখন মেয়েকে আশ্বাস দিয়েছে যে তোমাকে আমি রাখবো ছাড়বো না। তবে তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন দুই থেকে আড়াই লাখ টাকা দাবি করেছে। টাকা না দিলে রাখবে না এমনও কিছু বলছে না। 

লালুয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তপন বিশ্বাস  বলেন, পরশু আমি ওই মেয়ের মায়ের কাছে জানতে পারি যে, তার মেয়ে সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা।  তার মা আমাকে বিষয়টি সমাধানের জন্য বললে আইনের আশ্রয় নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছি।তিনি আরও বলেন, জেনেছি তার দুই মাস আগে বিয়ে হয়েছে। তবে অভিযোগ কতটা সত্যি জানি না।

কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জসিম  বলেন, ভুক্তভোগী তরুণীকে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য পটুয়াখালী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্ত ব্যক্তিকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। 


x

সর্বশেষ সংবাদ