ঈদ সালামি কত টাকা? 

খাঁ
ঈদ সালামি  © সংগৃহীত

ঈদ মানে খুশি, ঈদ মান আনন্দ। ঈদ মানে ছোট-বড় নানান আয়োজন। প্রায় এক মাস সিয়াম সাধনার পর আসে ঈদুল ফিতর।  ঈদকে ঘিরে ছোটবড় সকলের বিভিন্ন পরিকল্পনা থাকে। তবে এ পরিকল্পনার অন্যতম একটি অংশ ঈদ সালামি। ঈদ সালামি কত দেবো কিংবা নেবো এ নিয়ে সকলের মধ্যে চলে জল্পনা-কল্পনা।  

ঈদি, ঈদিয়া বা সালামি হল একটি উপহার। এটি ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আযহার সময় ঈদ উদযাপনের অংশ হিসাবে সাধারণত বড়রা ছোটদেরকে দিয়ে থাকেন। তবে বর্তমান সময়ে এটা আর ছোটবড়দের মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। সামান্য ছোট-বড়, প্রেমিক-প্রেমিকা, বন্ধু-বান্ধবী একে অপরের নিকটে ঈদ সালামি দাবি করেন। 

সালামি শুধু ঈদে নয় বরং আকিকা, জন্মদিন, প্রথম শিশুর মুখ দেখা বা নতুন বর-বউকে দেখতে এসেও অনেকে সালামি দিয়ে থাকে। সালামির সঙ্গে ধর্মীয় কোন সম্পৃক্ততা নেই। এটি সামাজিক একটি প্রথা। 

ঈদে ছোটরা বড়দের সালাম বা কদমবুসি করে। এ সময় বড়রা ছোটদের কিছু টাকা উপহার হিসেবে দেয়, আর এটাই সালামি। ঠিক কবে থেকে এটা পালন হচ্ছে, এ নিয়ে সঠিক ইতিহাস নেই। ভারতীয় উপমহাদেশে যুগযুগ ধরে এ প্রথা চলে আসছে। তবে সালামি যত টাকাই হোক না কেন, তা অবশ্যই চকচকে নতুন হতে হবে।

বেসরকারি একটি ব্যাংকের কর্মকর্তা ফারিয়া পারভিন জানান, ঈদ আসলেই বাচ্চাদের সালামি দিয়ে আলাদা একটি প্রশান্তি অনুভব করি। টাকার পরিমাণ অল্প হোক কিংবা বেশি বাচ্চারা নতুন টাকা পেয়েই খুশি হয়। 

কিছুটা হেসে সরকারি একটি মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা নির জানান, ২০০৬ সালের দিকে ছোটবেলায় আমাদের ঈদ সালামি দেওয়া হতো ১০ টাকা। বর্তমানেও বাচ্চাদের ১০ টাকা ঈদ সালামি দেওয়া হয়। সবকিছু বাড়লে ঈদ সালামি বাড়েনি। এ ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানাই। আমার মতো বাচ্চাদের কয়েকটি হাজার টাকার নোট ঈদ সালামি দেওয়া হোক। 

৮ বছরের শিশু ফারুক জানান, ঈদ আসলেই সালামি পাই। এ টাকা জমিয়ে খেলনা কিনবো। অনেকগুলো খেলনা কিনবো। 


x

সর্বশেষ সংবাদ