হজ ফ্লাইট শুরু ৩১ মে

হজ
পবিত্র কাবা শরীফ  © ফাইল ছবি

এবার হজ ফ্লাইট শুরুর সম্ভাব্য তারিখ আগামী ৩১ মে। হজে যেতে হাজিদের ১ লাখ ৪০ হাজার টাকা ভাড়া দিতে হবে বলে জানিয়েছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুর আলী।

বুধবার (২৭ এপ্রিল) দুপুরে সচিবালয়ে হজ সংক্রান্ত বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান তিনি। এ সময় বিমান সচিব মোকাম্মেল হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী বলেন, হজ প্রতিপালন আমাদের সবচেয়ে বড় কাজ। হজ প্রতিপালনে ব্যতিক্রম ঘটলে সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়। এ বছর হজ যাত্রীরা যেন নিরাপদে যেতে পারে, ফ্লাইট সিডিউলসহ কোনো ধরনের ঝুঁকি ঝামেলা যাতে না হয় সেজন্য ধর্ম মন্ত্রণালয়, হাব, আটাবসহ সংশ্লিষ্ট সবার সঙ্গে পরামর্শ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: এসএসসি পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ, শুরু ১৯ জুন

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘৩১ মে প্রথম ফ্লাইট হবে, এ ধারণা থেকে আমরা আলোচনায় বসেছি। এর মধ্যেই যেন সব কাজ শেষ করতে পারি, সেজন্য সবাই বসে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমাদের ডেডিকেটেড ফ্লাইট থাকবে ৭৫টি। আমাদের বহরের সবচেয়ে বড় উড়োজাহাজ বোয়িং ট্রিপল সেভেন ডেডিকেটেড ফ্লাইট হিসেবে নেব।’

মাহবুব আলী বলেন, ‘জ্বালানি তেলের দাম দ্বিগুণের মতো বৃদ্ধি পেয়েছে। সব বিবেচনায় নিয়ে আমরা দেখেছি, ভাড়া দেড় লাখ টাকা আসে। কিন্তু হাজি সাহেবদের কথা বিবেচনায় রেখে এটিকে এফোর্টেবল রাখতে আমরা এটা ঠিক করেছি ১ লাখ ৪০ হাজার টাকা। সৌদি এয়ারলাইন্সও একই ভাড়া রাখবে।’

হজ এজেন্সিস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম জানান, হাব এবং ধর্ম মন্ত্রণালয়ের হজযাত্রীদের বিমান ভাড়ার প্রস্তাব ছিল এক লাখ ২৫ হাজার টাকা। মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ করা হয়েছে, ভাড়া আরও কমানোর জন্য।


x