বাসে আগুনের পর রামপুরায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ

বাসে আগুনের পর রামপুরায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ
বাসে আগুনের পর রামপুরায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ  © সংগৃহীত

রাজধানী ঢাকার রামপুরায় সড়ক দুর্ঘটনায় এক শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার পর বেশ কয়েকটি বাস পুড়িয়েছে বিক্ষুব্ধ জনতা, ভাঙচুরও করেছে আরও কয়েকটি বাস। এ ঘটনায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করেছে উত্তেজিত জনতা। সোমবার (২৯ নভেম্বর) রাতে রামপুরা বাজারের সামনে এ ঘটনা ঘটে। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ঘটনার পর মালিবাগ থেকে রামপুরা পর্যন্ত দুইপাশের সড়ক বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এ সময় শুধু বাসগুলো জ্বলতে দেখা গেছে। উত্তেজিত জনতা বাসগুলোতে আগুন দেওয়ার পাশাপাশি ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করছে।

মালিবাগের পাবনা কলোনির বাসিন্দা জীবন চৌধুরী বলেন, বাসের চাপায় ওই শিক্ষার্থীর দেহ একেবারে পিষে যায়। পরে উত্তেজিত জনতা গ্রিন অনাবিলের বাসটিসহ কয়েকটি বাসে আগুন ধরিয়ে দিতে শুরু করে।

পড়ুন: রাজধানীতে বাসচাপায় শিক্ষার্থীর মৃত্যু, বাসে আগুন-ভাঙচুর

ফায়ার সার্ভিসের নিয়ন্ত্রণ কক্ষে যোগাযোগ করা হলে ডিউটি অফিসার এরশাদ আলী জানান, রামপুরা সড়কে নয়টি বাসে আগুনের খবর পেয়ে তাদের বাহিনীর কয়েকটি ইউনিট আগুন নেভাতে গেছে।

রামপুরা থানার উপ-পরিদর্শক মো. মারুফ গণমাধ্যমকে বলেন, রাত পৌনে এগারোটার দিকে ঘটনাটি ঘটে রামপুরা কাঁচাবাজারের সামনে। অনাবিল বাসের চাপায় একজন নিহত হন। নিহতের পরিচয় এখনো শনাক্ত করা যায়নি। অনেকে বলছে, যে নিহত হয়েছে, সে শিক্ষার্থী ছিল। তবে আমরা নিশ্চিত নই।


মন্তব্য

x