কাঁদতে কাঁদতে বাবা-মার লাশ চিনিয়ে দিল মীম

বাল্কহেডের সঙ্গে স্পিডবোটের ধাক্কা
শিশু মিম  © সংগৃহীত

মাদারীপুরের শিবচরে পদ্মা নদীতে বালুবোঝাই বাল্কহেডের সঙ্গে স্পিডবোটের ধাক্কায় পিতা-মাতা ও দুই বোনকে হারিয়ে অলৌকিকভাবে বেঁচে গেল শিশু মিম। সবাইকে হারিয়ে নিঃস্ব মীম সারি করে রাখা লাশের মাঝে প্রশাসনের কর্মকর্তাদেরকে বাবা-মা ও দুইবোনের লাশ চিনিয়ে দিয়েছে। এ সময় চিৎকার করে কাঁদছিল শিশুটি।

শিবচর উপজেলা প্রশাসন তেরখাদা উপজেলা প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ করে মীমকে তার পরিবারের এই চার জনের মরদেহসহ বাড়ি পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। আনুমানিক ৮/৯ বছরের মীম এদিন পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে ঢাকা থেকে খুলনার তেরখাদা উপজেলায় বাড়ি যাচ্ছিল।

এসময় কাঁঠালবাড়ি ঘাটের একটি বালুবাহী বাল্কহেডের সঙ্গে ধাক্কা লেগে একটি যাত্রীবাহী স্পিডবোট ডুবে যাওয়ার পর ২৬ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। শিবচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আসাদুজ্জামান জানিয়েছেন, নিহতদের মধ্যে খুলনার তেরখাদা উপজেলার একটি পরিবারের চার জন নিহত হয়েছে।

শিবচরের বাংলাবাজার ফেরিঘাটের ট্রাফিক পরিদর্শক আশিকুর রহমান জানান, মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া থেকে ৩০-৩৫ জন যাত্রী নিয়ে মাদারীপুরের শিবচরের বাংলাবাজারের দিকে আসছিল স্পিডবোটটি। ঘাটের কাছাকাছি এলে নোঙর করা বালুবোঝাই একটি বাল্কহেডে ধাক্কা দিয়ে স্পিডবোটটি উল্টে যায়।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ