একরামুলকে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে আল্টিমেটাম

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
ঢাবিতে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সমাবেশ  © টিডিসি ফটো

নোয়াখালী-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ একরামুল করিম চৌধুরীকে নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার জন্য ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিয়েছে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে কটুক্তি করায় এই আল্টিমেটাম দেওয়া হয়।

শনিবার (২৩ জানুয়ারি) বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে আয়োজিত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ থেকে এ আল্টিমেটাম দেওয়া হয়।

মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক আল মামুনের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল, ঢাবি শাখার সভাপতি সনেট মাহামুদ, অপরাজেয় বাংলার সদস্য সচিব এইচ রহমান মিলুসহ সংগঠনের বিভিন্ন ইউনিট থেকে আসা নেতা-কর্মীরা।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, প্রত্যেকটি মানুষের সমালোচনা করার অধিকার রয়েছে। ওবায়দুল কাদেরের যেকোনো কাজের গঠনমূলক সমালোচনা তিনি করতেই পারেন। কিন্তু তাই বলে তাকে রাজাকারের বংশধর বলতে পারেন না। স্থানীয় রাজনৈতিক দ্বন্দ্বকে কেন্দ্র করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একরামুল করিম চৌধুরীর বক্তব্য ছিল পুরোপুরি মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধী। এহেন বক্তব্যের মাধ্যমে তিনি দলীয় গঠনতন্ত্র ও শৃঙ্খলা ভঙ্গ করেছেন।

মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল বলেন, সংবিধান পরিপন্থী বক্তব্যের মাধ্যমে শপথ ভঙ্গ করে তিনি সংসদ সদস্য পদে থাকার নৈতিক যোগ্যতা হারিয়েছেন।

সাধারণ সম্পাদক আল মামুন বলেন, আওয়ামী লীগের দলীয় শৃঙ্খলা বজায় রাখার স্বার্থে অবিলম্বে একরামুল করিম চৌধুরীকে সংসদ থেকে অপসারণ ও নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে বহিষ্কারের দাবি জানাচ্ছে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ