রাজনীতি নয়, খুন-ধর্ষণে ব্যস্ত ছাত্রলীগ: কর্নেল অলি

রাজনীতি নয়, খুন-ধর্ষণে ব্যস্ত ছাত্রলীগ: কর্নেল অলি
ডক্টর কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীর বিক্রম  © সংগৃহীত

রাজনীতি নয়, খুন-ধর্ষণে ব্যস্ত ছাত্রলীগ- এমন মন্তব্য করেছেন ডক্টর কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীর বিক্রম। বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) এক বিবৃতিতে তিনি এ কথা বলেন। 

২০ দলীয় জোটের  শীর্ষ নেতা ও লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এলডিপি)-এর প্রেসিডেন্ট কর্নেল (অব.) অলি আহমদ এক বিবৃতিতে বলেছেন, 'বাংলাদেশ ছাত্রলীগ আজ সন্ত্রাসীদের সংগঠনে পরিণত হয়েছে। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা এখন সুস্থ ধারার রাজনীতির চর্চা বাদ দিয়ে খুন, ধর্ষণ, লুটপাট, অগ্নিসংযোগ, সিট ও ভর্তি বাণিজ্যে ব্যস্ত রয়েছে।'

তিনি আরও বলেন, 'ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদলের ওপর ছাত্রলীগের হামলা ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের জন্য এক ভীতিকর ও অনিরাপদ পরিবেশ সৃষ্টি করেছে। আর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ছাত্রলীগের এই সন্ত্রাসী এবং দখলদারিত্বের ভূমিকাকে প্রকাশ্যে সমর্থন দিয়ে চলেছেন।'

আরও পড়ুনঃ ঢাবিতে ছাত্রদলের ওপর হামলাকারী সবাই ছাত্রলীগের

কর্নেল অলির বক্তব্য অনুযায়ী, আওয়ামী লীগ রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করার পর থেকে লাগামহীন অপরাধ কর্মকাণ্ডে নামে ছাত্রলীগ। ক্যাম্পাসে খুনোখুনি, লাগাতার অভ্যন্তরীণ তাণ্ডব, সাধারণ শিক্ষার্থীদের নির্যাতন, বেপরোয়া সন্ত্রাসের অভিযোগ সত্ত্বেও একটি ঘটনারও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির নজির নেই। এতে দিন দিন সংগঠনটিতে অপরাধ প্রবণতা প্রবলতর হচ্ছে।

বক্তব্য প্রদানকালে তিনি আরও বলেছেন, 'দেশে এমন কোনো অপরাধ নেই, যার সঙ্গে ছাত্রলীগ যুক্ত নেই। বিরোধী দলকে দমন-পীড়নে এই সন্ত্রাসী সংগঠনটিকে ব্যবহার করছে আওয়ামী লীগ। গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক পরিবেশ বিনষ্ট করে করছে তারা। ছাত্রলীগ বিরোধী দলের সভা-সমাবেশে হামলা চালিয়ে রাজনৈতিক পরিবেশকে উত্তপ্ত করে তুলছে। এতে অনিবার্যভাবে এক সংঘাতময় পরিস্থিতি সৃষ্টি ও জননিরাপত্তা হুমকির মুখে পড়েছে। এমতাবস্থায় ছাত্রলীগের সন্ত্রাসী ও অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে লাগাম টেনে ধরা জরুরি। সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে ছাত্রলীগকে নিষিদ্ধ করা এখন সময়ের দাবি।' 


x

সর্বশেষ সংবাদ