লুঙ্গিকে অশ্লীল পোশাক বললেন তসলিমা নাসরিন

লুঙ্গিকে অশ্লীল পোশাক বললেন তসলিমা নাসরিন
তসলিমা নাসরিন  © সংগৃহীত

বিতর্কিত মন্তব্য করে বরাবরই আলোচনায় থাকেন তসলিমা নাসরিন। এবার পুরুষদের পোশাক লুঙ্গি নিয়ে করলেন বিস্ফোরক মন্তব্য। লুঙ্গিকে ‘অশ্লীল পোশাক’ বলে তার ভেরিফাইড ফেসবুক আইডিতে পোস্ট করেন।

তিনি লিখেন- পুরুষের লুঙ্গিটাকে আমার খুব অশ্লীল পোশাক বলে মনে হয়। ভারতীয় উপমহাদেশে যে পুরুষেরা লুঙ্গি পরে, তাদের বেশির ভাগই কোনও আণ্ডারওয়্যার পরে না, লুঙ্গিটাকে অহেতুক খোলে আবার গিঁট দিয়ে বাঁধে। কখনও আবার গিঁট ছুটে গিয়ে হাঁটুর কাছে বা গোড়ালির কাছে চলে যায় লুঙ্গি। তাছাড়া লুঙ্গি পরার পরই শুরু হয় তাদের অঙ্গ চুলকানো।

আরও পড়ুন: যে গ্রামের সব নারীই সুন্দর, কিন্তু পাত্রের অভাবে হচ্ছে না বিয়ে

ডানে বামে পেছনে সামনে এত কেন চুলকোয় কে জানে। সামনে মানুষ থাকলেও তারা অঙ্গ অন্ড কিছুই চুলকোনো বন্ধ করে না, না চুলকোলেও ওগুলো ধরে রাখার, বা ক্ষণে ক্ষণে ওগুলো আছে কি না পরখ করে দেখার অভ্যেস কিছুতেই ত্যাগ করতে পারে না। পরখ করার ফিকোয়েন্সিটা অবশ্য মেয়েদের দেখলে বেশ বেড়ে যায়।

বাংলাদেশ তো বটে, উপমহাদেশের প্রায় প্রত্যেকে পুরুষের কাছে প্রিয় পোশাকের তালিকায় আছে লুঙ্গি। দিনমজুর থেকে শুরু করে অফিসের বড় বাবুও যখন ঘরে ফেরেন, সবার আগে কাছে টেনে নেন লুঙ্গিকে।

শুক্রবার রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লুঙ্গি নিয়ে বিতর্ক উসকে দিয়েছেন তসলিমা। লুঙ্গির নিচে পুরুষেরা আন্ডারওয়্যার পরে না জানিয়ে এই পোশাককে নিয়ে বিদ্রূপ করতে ছাড়েননি তিনি।

তসলিমার এই পোস্টকে ঘিরে বেশ বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে। পোস্টটির কমেন্টবক্সে এসে অনেকে লুঙ্গি পরার কারণ জানিয়েছেন। অনেকে আবার করেছেন কৌতুকপূর্ণ মন্তব্য। তবে বেশ কয়েকজন তসলিমার সঙ্গে একমত হয়েছেন।

তাদের একজন মাহমুদা শেলি। তসলিমার পোস্টের কমেন্টবক্সে তিনি লেখেন, ‘একদম সত্য কথা গুরু। বদমাইশগুলি ইচ্ছা করেই এসব করে।’ তন্দ্রা ভট্টাচার্য নামে আরেকজনের মন্তব্য, ‘আমার খুব বাজে লাগে।’

সঞ্জয় ব্যাণার্ঞ্জি লিখেছেন, আমি জীবনে কোনোদিন লুঙ্গি পরিনি । আজ আপনার এই লেখা পড়ে নিজের সিদ্ধান্ত কে পূর্ণ যথাযথ মনে হচ্ছে। বাস্তব কে এত সুন্দর ভাবে পর্যবেক্ষণ করে কলমে তুলে ধরার গুণের জন্যই আপনি আজ এত বড়ো লেখিকা, অথচ আপনার বর্ণিত কারণগুলোই কিন্তু আমার লুঙ্গি এড়িয়ে যাবার কারণ।

আরও পড়ুন: নয় বছর বয়সেই একশ’ কোটি ডলারের মালিক মোমফা!

তবে একই পোস্টের নিচে লেখক স্বকৃত নোমান জানান, ‘লুঙ্গি না পরলে তো রাতে আমার ঘুমই হয় না, আপা। লুঙ্গির জয় হোক।’ মোহাম্মদ জব্বার নামে আরেকজন কৌতুকচ্ছলে লিখেছেন, ‘অশ্লীল এবং অভদ্র পোশাক! আইন করে বন্ধ করা উচিত!

শাহীন শাহেদ লিখেন, আমাকে আমার এলাকায় সবাই লুঙ্গি শাহীন নামে চিনে। মোঃ কাওসার লিখেন, লুঙ্গি পরা খারাপ নয় বরং আরামদায়ক; খারাপ হলো মনে ও ভঙ্গিতে। সুদীপ সরকার লিখেন, তবে যত কথাই বলেন না কেন, লুঙ্গির কিন্তু বেশ কিছু চমৎকার উপকারী দিকও আছে বটে।


x