সাহারার বিজ্ঞাপন এখন আর দেখেন?

শুভ কামাল
শুভ কামাল  © সংগৃহীত

৯০ এর পোলাপান সাহারার বিজ্ঞাপন দেখে বড় হয়েছে। এমন কোন খেলা নাই যেটা সাহারা কোম্পানি স্পন্সর করতো না, এমনকি তারা ইন্ডিয়ান ক্রিকেট টিমেরও স্পন্সর ছিলো যতকাল আমি খেলা দেখেছি ততকাল। বিজ্ঞাপন এর শেষে লেখা থাকতো 'সাহারা ইন্ডিয়া পরিবার'। কখনো কি ভেবেছেন, এই সাহারা একটা মাল্টি লেভেল মার্কেটিং কোম্পানী, তথা ডেস্টিনি টাইপের কোম্পানী?

সাহারা অনেককাল ভারতের বড় কোম্পানীদের একটা ছিল, তারা বিজ্ঞাপন দিয়ে ফাটিয়ে ফেলতো তাই কখনো কেউ এর ব্যবসা পদ্ধতি নিয়ে প্রশ্ন তোলে নাই। এদের বিজনেস মডেল ছিল গ্রামের প্রান্তিক জনগণের কাছ থেকে মাসে স্বল্প পরিমাণের টাকা নিয়ে জমা রাখা, এবং বিনিময়ে অস্বাভাবিক অঙ্কের সুদ সহ টাকা ফেরত দেয়া। হ্যাঁ তারা টাকা ফেরত দিচ্ছিলো, এত অস্বাভাবিক সুদ দেয়ার পরেও তাদের টাকা কখনো কমেনাই, কিংবা গ্রাহকদের টাকা ফেরত দেয়া বন্ধ হয়নাই কারণ তাদের গ্রাহক সংখ্যা বছরের পর বছর ধরে বাড়ছিলোই।

নেটফ্লিক্সে একটা ডকুসিরিজ আছে ব্যাড বয় বিলিওনেয়ার, সেখানে সাহারার পুরা স্কিমের বর্ণনা আর ঘটনাক্রম আছে।

পিরামিড স্কিম গুলা এভাবেই কাজ করে। নিচের দিকের নতুন গ্রাহকের টাকা দিয়ে পুরনো গ্রাহকদের ভর্তুকি দেয়, এভাবে কিছু কাল চলতে থাকে, এরা জনপ্রিয়তা পায়, এক সময়ে ধ্বসে পরে। সাহারার বিজ্ঞাপন এখন আর দেখেন? সাহারার মালিক জেলে ছিল, এখন কোর্টের রায়ে তাকে মানুষের টাকা ফেরত দিতে বলা হয়েছে। এখন ফেঁসে গেছে ইন্ডিয়ার কোটি কোটি হতদরিদ্র মানুষ, যারা সাহারায় টাকা জমা রেখেছিল, স্বপ্ন দেখছিলো সেই টাকায় তাদের শেষ জীবন সুখের হবে, কিংবা সেই টাকা ভেঙ্গে তারা মেয়ের বিয়ে দিবে।

এর সাথে কোন বাংলাদেশী কোম্পানীর মিল পান? হ্যাঁ আমি ইভ্যালির কথাই বলছি। সাহারা দিচ্ছিলো অস্বাভাবিক সুদ, আর ইভ্যালি দিচ্ছে অস্বাভাবিক ডিসকাউন্ট। এছাড়া এই দুই কোম্পানীর বাকি সব বিষয়েই পুরোপুরি মিল আছে। হ্যাঁ সাহারাও অনেক বছর ধরে মানুষকে প্রতিশ্রুতি মোতাবেক সুদসহ টাকা দিয়ে যাচ্ছিলো, যেমনটা ইভ্যালি এখনও ঠিকঠাক ডেলিভারি দেয়!

বুদ্ধিমানের জন্য ইশারাই যথেষ্ট!! (ফেসবুক থেকে সংগৃহিত)


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ