১১৪ আসনের বিপরীতে মেডিকেলের দ্বিতীয় মাইগ্রেশন

দ্বিতীয় মাইগ্রেশন
মেডিকেল শিক্ষার্থী  © ফাইল ফটো

সারা দেশের সরকারি মেডিকেল কলেজগুলোতে দ্বিতীয় দফার মাইগ্রেশন শেষ করার উদ্যোগ নিয়েছে স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তর। এ লক্ষ্যে সরকারি মেডিকেল কলেজে শূন্য হওয়া আসনের তথ্য বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) কাছে পাঠানো হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, গত বছরের ২২ ডিসেম্বর মেডিকেলের প্রথম ধাপের মাইগ্রেশন ও অপেক্ষমান তালিকা প্রকাশ করেছিল স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তর। ৩৩৪ আসনের বিপরীতে মাইগ্রেশন সম্পন্ন হয়েছিল। ওই মাইগ্রেশন ও অপেক্ষামান থেকে ভর্তি শেষ হওয়ার পর নতুন করে শূন্য আসনের তথ্য সংগ্রহ  করা হয়।

আরও পড়ুন: সম্পূর্ণ সিলেবাসেই মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা 

সূত্র জানায়, দ্বিতীয় দফায় ১১৪ আসনের বিপরীতে মাইগ্রেশন সম্পন্ন করা হবে। গতকাল সোমবার একটি তালিকা বুয়েটের কম্পিউটার বিজ্ঞান বিভাগের সংশ্লিষ্টদের কাছে পাঠানো হয়েছে। তালিকা তৈরির পর সেটি আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশ করবে স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তর।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অধিদপ্তরের এক কর্মকর্তা দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে বলেন, আরেকটি ভর্তি পরীক্ষা সন্নিকটে। তাই দ্রুত সময়ের মধ্যে দ্বিতীয় দফার মাইগ্রেশন শেষ করা হবে। ১১৪টি আসনের বিপরীতে এই মাইগ্রেশন হবে। তালিকা বুয়েটের কাছে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন: জাবিতে এক ছাত্রকে শারীরিক ভাবে লাঞ্চিত করলেন এক ছাত্রী

কবে নাগাদ মাইগ্রেশনের তালিকা প্রকাশ করা হবে— এমন প্রশ্নের জবাবে ওই কর্মকর্তা আরও বলেন, এটি এই মুহূর্তে বলা সম্ভব নয়৷ বুয়েটের তালিকা তৈরির কাজ শেষ হলে তখন বলা যাবে।

এর আগে গত ২২ ডিসেম্বর ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি হওয়া মেডিকেল শিক্ষার্থীদের প্রথম ধাপের মাইগ্রেশন ও অপেক্ষামনা তালিকা প্রকাশ করা হয়। মাইগ্রেশন ও ভর্তি শুরু হয় ২৮ ডিসেম্বর থেকে। চলে ৯ জানুয়ারি পর্যন্ত। এরপর দ্বিতীয় ধাপের মাইগ্রেশন ও অপেক্ষমান তালিকা প্রকাশ করতে তথ্য সংগ্রহ শুরু করে অধিদপ্তর।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ২ এপ্রিল সারা দেশে একযোগে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস কোর্সের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এর একদিন পর ৪ এপ্রিল পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়। এবার দেশের সরকারি মেডিকেল কলেজগুলোতে আসন ছিল ৪ হাজার ৩৫০টি।


x

সর্বশেষ সংবাদ