সশরীরে ক্লাসে ফেরার আকুতি মেডিকেলের ৩য়-৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থীদের

ক্লাস
সশরীরে ক্লাসে ফেরার আকুতি মেডিকেলের শিক্ষার্থীদের  © ফাইল ফটো

মহামারি করোনার কারণে দীর্ঘ বছরের পর শিক্ষার্থীদের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। গত ১১ সেপ্টেম্বরের পর একে একে স্কুল-কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিকেল কলেজগুলোতে ক্লাস শুরু হয়েছে। তবে বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি মেডিকেল কলেজের তৃতীয় ও চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীদের সশরীরে ক্লাস এখনো শুরু হয়নি।

শিক্ষার্থীদের দাবি, চিকিৎসা শাস্ত্রের লেখা-পড়া অনেকটাই ব্যবহারিক জ্ঞাননির্ভর। অনলাইন ক্লাসের ফলে তারা অনেক কিছুই বুঝতে পারছেন না। বর্তমান সময় করোনার প্রকোপ অনেকটাই কমে গেছে। তাই দ্রুত সরকারি-বেসরকারি মেডিকেল কলেজের তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের সশরীরে ক্লাস শুরু করার দাবি জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

এদিকে মেডিকেলের এই দুই বর্ষের শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফেরানোর চিন্তাভাবনা শুরু করেছে স্বাস্থ্যশিক্ষা অধিদপ্তর।

সোমবার (২৫ অক্টোবর) অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এনায়েত হোসেন জানান, মেডিকেলের তৃতীয় ও চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফেরানোর বিষয়ে জাতীয় টেকনিক্যাল পরামর্শক কমিটির কাছে ইতোমধ্যে এ বিষয়ে মতামত চাওয়া হয়েছে। কমিটির মত পেলে দ্রুত এই দুই বর্ষের শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফেরানো হবে।

রাজধানীর একটি বেসরকারি মেডিকেল কলেজে তৃতীয় বর্ষের এক শিক্ষার্থী জানান, সরকারি বেসরকারি মেডিকেল কলেজে প্রথম, দ্বিতীয় ও পঞ্চম বর্ষের শিক্ষার্থীদের ক্লাস শুরু হয়েছে গত ১৩ সেপ্টেম্বর থেকে। কিন্তু তৃতীয় ও চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীদের হয়নি। এখনও অনলাইনে ক্লাস চলছে। কিন্তু মেডিকেলের পড়াশোনা অনেকটা ব্যবহারিক নির্ভর হওয়ায় আমরা অনেক কিছুই বুঝতে পারছি না।

তিনি আরও বলেন, সবার আগে মেডিকেল শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে। সরকারি-বেসরকারি মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীরা সবাই টিকার আওতায় এসেছে। কিন্তু আমাদের ক্লাস এখনো শুরু হয়নি। আমার দ্রুত ক্লাসে ফিরতে চাই।

এদিকে মেডিকেল শিক্ষার্থীর অভিভাবকের সাথে কথা বলে জানা যায়, করোনা সংক্রমণ কম হয়ে গেছে। প্রথম, দ্বিতীয় ও পঞ্চম বর্ষের মেডিকেল শিক্ষার্থীদের ক্লাস শুরু হয়েছে। তৃতীয় ও চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীদের ক্লাস শুরু না হওয়ায় আমার উদ্বিগ্ন। মেডিকেলের পড়াশোনা ব্যবহারিক। তাই, আমরা চাই শিক্ষার্থীরা ক্লাসে ফিরুক। শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া হয়ে গেছে।

মেডিকেলের তৃতীয় ও চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীদের সশরীরে ক্লাস কবে শুরু হবে, সে বিষয়ে জানতে চাইলে স্বাস্থ্যশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এনায়েত হোসেন বলেন, মেডিকেলের শিক্ষার্থীরা টিকার আওতায় এসেছে। মেডিকেলের প্রথম, দ্বিতীয় ও পঞ্চম বর্ষের শিক্ষার্থীদের ক্লাস চলছে। আমরা তৃতীয় ও চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীদের দ্রুত ক্লাসে ফেরাতে চাই। শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফেরানোর মতামত চেয়ে আমরা জাতীয় পরামর্শক কমিটিকে লিখেছি।

তিনি আরও জানান, অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের বিষয়টি আমরা বুঝতে পারছি। মেডিকেলের পড়াশোনা প্র্যাকটিকাল। তাদের ক্লাসে ফেরানো জরুরি। তবে, জাতীয় পরমর্শক কমিটির সুপারিশ অনুসারে সব কিছু শুরু করা হচ্ছে। তাই সে অনুসারে আমরা জাতীয় পরামর্শক কমিটির মতামত চেয়ে চিঠি দিয়েছি। তাদের মতামত অনুযায়ী শিক্ষার্থীদের ক্লাস শুরু হবে।


মন্তব্য

x

সর্বশেষ সংবাদ