মাইগ্রেশনের দাবিতে রাতেও অবস্থান কর্মসূচিতে মেডিকেল শিক্ষার্থীরা

মাইগ্রেশনের দাবিতে রাতেও অবস্থান কর্মসূচিতে মেডিকেল শিক্ষার্থীরা
  © সংগৃহীত

মাইগ্রেশনের দাবিতে আশুলিয়ার নাইটিংগেল মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীরা দিনভর আন্দোলন করে যাচ্ছেন। এরই ধারাবাহিকতায় রাতেও ক্যাম্পাসের ভেতর অবস্থান কর্মসূচি পালন করছে তারা। এর আগে সকালে সাভারের টঙ্গী-আশুলিয়া-ইপিজেড মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন তারা। পরে পুলিশ এসে শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলে এবং সড়ক থেকে সরিয়ে দেয়। অতঃপর শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে ক্যাম্পাসে ফিরে যায়। ক্যাম্পাসে ফিরে তারা অবস্থান কর্মসূচি শুরু করে।

শিক্ষার্থীরা জানান, নাইটিংগেল মেডিকেল কলেজের বিএমডিসির অনুমতি নেই। এজন্য তারা অন্যত্র মাইগ্রেশন করতে গেলে মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ একটি রিট করে। ফলে তারা মাইগ্রেশন করতে পারছেন না। এমন পরিস্থিতিতে তারা মাইগ্রেশনের দাবিতে আন্দোলনে নামতে বাধ্য হয়েছেন।

আরও পড়ুন: ৩২ শতাংশ স্কুলশিক্ষকের প্রশিক্ষণ নেই

তারা বলেন, আমরা ২০১৭ সালে ভর্তি হয়েছি। প্রায় ৪ বছর শেষ হয়ে গেছে। ভর্তির পর থেকেই আমরা কর্তৃপক্ষকে বলেছি কলেজ ঠিক করেন। এছাড়া বিএমডিসির রেজিস্ট্রেশন আমাদের করে দিতে হবে। আমরা এমডির সঙ্গে অনেক বার বসতে চেয়েছি। কিন্তু তিনি আমাদের সঙ্গে বসবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন।

কলেজটির শিক্ষার্থী ইমরান খান ইমন বলেন, মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ আমাদের মিথ্যা আশ্বাস ও আদালতের কিছু কাগজপত্র দেখিয়ে ভর্তি করায়। কিন্তু তারা এখনো রেজিস্ট্রেশন এনে দিতে পারেনি। কলেজের শিক্ষাব্যবস্থা সংক্রান্ত সব সুযোগ-সুবিধা থেকেও তাদের বঞ্চিত করেছে।

তিনি আরো বলেন, আমরা সকালে মহাসড়ক অবরোধ কর্মসূচি পালন করেছি। এখন কলেজের ভেতর শান্তিপূর্ণভাবে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছি। দাকি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমরা এ আন্দোলন করে যাব।

মাইগ্রেশন না দিলে ৪৫ জন শিক্ষার্থীর জীবন অনিশ্চিত হয়ে পড়বে বলেও জানান তারা।

নাইটিংগেল মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ রুহুল কবির রুমি বলেন, আমরা শিক্ষার্থীদের দাবির বিষয়টি নিয়ে কর্তৃপক্ষেল সঙ্গে কথা বলছি। আশা করছি দ্রুতই সমস্যার সমাধান হবে।

উল্লেখ্য, গত বুধবার একই দাবি জানিয়ে কলেজের অধ্যক্ষকে তার কক্ষে দিনভর অবরোধ করে রাখে শিক্ষার্থীরা এবং তারা অবস্থান কর্মসূচি পালন করে।


সর্বশেষ সংবাদ