এশিয়ার নোবেলখ্যাত ম্যাগসেসে পুরস্কার পেলেন বাংলাদেশের বিজ্ঞানী

করোনা
চিকিৎসা বিজ্ঞানী ড. ফেরদৌসী কাদরী  © ফাইল ছবি

এশিয়ার নোবেল হিসেবে পরিচিত র‌্যামন ম্যাগসেসে পুরস্কার। এ বছর সেই পুরস্কার পেয়েছেন বাংলাদেশের চিকিৎসা বিজ্ঞানী ড. ফেরদৌসী কাদরী। তিনি আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্র বাংলাদেশের (আইসিডিডিআরবি) ইমিউনোলজি বিভাগের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। 

মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) র‌্যামন ম্যাগসেসে অ্যাওয়ার্ড ফাউন্ডেশনের বোর্ড অব ট্রাস্টি ২০২১ সালের পুরস্কার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করেছে।

ওই অ্যাওয়ার্ড ফাউন্ডেশনের ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে বিজ্ঞানী, ফিরদৌসী কাদরী ছাড়াও আরও দু'জন এই পুরস্কার পেয়েছেন। তারা হলেন, পাকিস্তানের অন্যতম বৃহৎ এক ক্ষুদ্রঋণ প্রতিষ্ঠানের প্রধান মোহাম্মদ আমজাদ সাকিব এবং দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় বাস্ত্যুচুত শরণার্থীদের জীবন পুনর্গঠনে কাজ করা স্টিভেন মুনচি।

এই পুরস্কারটি এশিয়ার সর্বোচ্চ সম্মাননা এবং এই অঞ্চলে নোবেল পুরস্কারের সমতুল্য হিসেবে বিবেচনা করা হয়। কলেরা মহামারি থেকে মানুষকে রক্ষার জন্য সাশ্রয়ী মূল্যের টিকা নিয়ে যারা কাজ করেছেন ড. ফেরদৌসী তাদের মধ্যে অন্যতম হওয়ায় তিনি এই পুরস্কার অর্জন করেছেন।

ফিরদৌসী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণরসায়ন ও আণবিক জীববিদ্যা বিভাগ থেকে ১৯৭৫ সালে বি.এসসি ও ১৯৭৭ সালে এমএস ডিগ্রি অর্জন করেন। ১৯৮০ সালে যুক্তরাজ্যের লিভারপুল বিশ্ববিদ্যালয়ের  প্রাণরসায়ন/প্রতিষেধকবিদ্যা বিভাগ থেকে পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি ১৯৮৮ সালে আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্র বাংলাদেশে (আইসিডিডিআরবি) যোগদান করেন। বর্তমানে তিনি আইসিডিডিআরবির ইমিউনোলোজি বিভাগের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। কর্মজীবনের শুরু থেকেই ডা. কাদরী সংক্রামক ব্যাধি, ইমিউনোলজি, ভ্যাকসিন উদ্ভাবন এবং ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের ওপর মনোনিবেশ করেন। ২০২০ সালে তিনি  ল’রিয়েল-ইউনেসকো ফর ওমেন ইন সায়েন্স অ্যাওয়ার্ড পান।


মন্তব্য

x