‘দেড় মাস পর করোনার আরেকটা ঢেউ আসতে পারে’

ঢেউ
ডা. মুশতাক হোসেন  © ফাইল ফটো

বর্তমানে বাংলাদেশে করোনা সংক্রমণ খুব কম। তবে সংক্রমণ যদি দু-তিন সপ্তাহ একেবারে নাও থাকে, তবুও আমাদের সাবধান থাকতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে। মাস্ক পরতে হবে। সাবান দিয়ে হাত ধুতে হবে। কারণ, এক-দেড় মাস পর এখানে করোনার আরেকটি ঢেউ আসতে পারে।

সম্প্রতি গণমাধ্যমের সাথে আলাপকালে এসব কথা জানান রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) উপদেষ্টা ও সাবেক প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ডা. মুশতাক হোসেন বলেছেন,

তিনি বলেন, কিছুদিন আগে চীন, জাপান, কোরিয়াসহ এশিয়ার বিভিন্ন দেশে করোনা সংক্রমণ হঠাৎ করে বেড়ে গিয়েছিল। এখন কমেছে। বর্তমানে আবার ইউরোপে সংক্রমণ বাড়ছে। জার্মানিতে গত এক দিনে দেড় লাখের বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছে। মারা গেছে তিন শতাধিক মানুষ। এখানে সংক্রমণ এখন কম বলে নিশ্চিন্ত হওয়ার অবকাশ নেই। পৃথিবীর সবাই এখনো টিকা পায়নি। আফ্রিকার অনেক দেশে টিকার কাভারেজ কম। এ কারণে নতুন ভ্যারিয়েন্ট তৈরির অবকাশ রয়েছে।

আরও পড়ুন: বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি ডিগ্রিধারী শিক্ষক কমেছে

ডা. মুশতাক হোসেন আরও বলেন, যত দিন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা আনুষ্ঠানিকভাবে মহামারি উঠিয়ে না নেবে, তত দিন আমাদের সাবধান থাকতে হবে। সব ধরনের স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে। এখন ইউরোপে সংক্রমণ বাড়ছে। এক-দেড় মাস পর এখানে আরেকটি ঢেউ আসতে পারে। কারণ, সময়ের সঙ্গে সঙ্গে অ্যান্টিবডি কমে যায়। এ জন্য ভাইরাসটি শরীরে প্রবেশ ঠেকাতে মাস্ক পরতে হবে। অপ্রয়োজনীয় ভ্রমণ ও ভিড় এড়িয়ে চলতে হবে। বারবার সাবান দিয়ে হাত ধুতে হবে। কোনো অনুষ্ঠানের আয়োজন করতে চাইলে অবশ্যই যেন সেখানে বাতাস চলাচলের ব্যবস্থা থাকে।


x

সর্বশেষ সংবাদ