করোনাভাইরাস

জুলাইয়ে ৬১৮২ মৃত্যু, সামনে আরও বিপদ

করোনা ভাইরাস
করোনাভাইরাস  © ফাইল ফটো

সদ্য শেষ হওয়া জুলাই মাসে দেশের করোনাভাইরাসের পরিস্থিতি ছিল সবচেয়ে ভয়াবহ। মৃত্যু এবং শনাক্ত অন্যান্য মাসের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে। এই এক মাসে ৬ হাজার ১৮২ মৃত্যু ও ৩ লাখ ৩৬ হাজার ২২৬ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে।

প্রাণঘাতী এই মাস শেষ হলেও মৃত্যু এবং শনাক্তের পরিস্থিতির শিগগির উন্নতি হচ্ছে না। আগস্টের মাঝামাঝি সময়ে এই  পরিস্থিতি আরও খারাপ হওয়ার শঙ্কা ‍বিশেষজ্ঞদের।

এর আগে করোনাভাইরাসে মৃত্যুর হিসাবে সবচেয়ে প্রাণঘাতী মাস ছিল চলতি বছরের এপ্রিল। ওই মাসে দেশে ২ হাজার ৪০৪ জনের মৃত্যু হয়। কিন্তু জুলাইয়ের ১৪ দিনেই এপ্রিলের মৃত্যুর রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে। 

সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) উপদেষ্টা ডা. মুশতাক হোসেন বলেন, আমাদের আশঙ্কা আগস্টের প্রথম দুই সপ্তাহে সংক্রমণ ও মৃত্যু আরও বাড়বে। ঈদের আগে সাতদিন যে বিধিনিষেধ শিথিল ছিলো সেটার প্রভাব পড়বে আগস্টের প্রথম দুই সপ্তাহে। চলমান বিধিনিষেধ যদি কার্যকর করা যায় তাহলে এটির সুফল আগস্টের শেষে পাওয়া যাবে বলে আশা করা যায়।

এদিকে শুক্রবার (৩০ জুলাই) করোনাভাইরাস মহামারি পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় চলমান লকডাউন আরও বাড়ানোর সুপারিশ করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এবিএম খুরশীদ আলম বলেন, সরকার যদি সবকিছু  পুনরায় খুলে দেয় তাহলে সংক্রমণ হার অবশ্যই বেড়ে যাবে। কারখানা খোলার চাপ রয়েছে। কিন্তু পরবর্তীতে সংক্রমণ বেড়ে গেলে আমরা রোগীদের হাসপাতালে জায়গা দিতে পারবো না।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ