করোনা সংক্রমণ বাড়ায় ৫ হাসপাতালকে প্রস্তুতির নির্দেশ

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়
স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়  © লোগো

দেশে করোনা মহামারির প্রকোপ কিছুটা কমে আবারো আশঙ্কাজনক হারে বাড়তে শুরু করায় রাজধানীর সরকারি পাঁচটি হাসপাতালকে প্রস্তুতি নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়। এছাড়া শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটকে করোনা চিকিৎসা সেবা শুরু করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বিষয়টি অতীব জরুরি উল্লেখ করে সোমবার (২২ মার্চ) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বরাবর পাঠানো স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের উপসচিব ড. বিলকিস বেগম স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়, দেশে ক্রমাগত করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকায় সম্ভাব্য পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য রাজধানীর মিরপুরের লালকুঠি হাসপাতাল, ঢাকা মহানগর হাসপাতাল, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, ডিএনসিসি করোনা আইসোলেশন সেন্টার ও সরকারি কর্মচারী হাসপাতালকে সার্বিকভাবে প্রস্তুত রাখার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।

অন্যদিকে পৃথক আরেক আদেশে বলা হয়েছে, দেশে ক্রমাগত করোনা রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে করোনা রোগীর চিকিৎসা সেবা চালু করার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। আর ১৮ মার্চ প্রথম এই ভাইরাসে মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। এরপর গত ৩০ নভেম্বরের পর থেকে সংক্রমণ নিম্নমুখী থাকলেও ফেব্রুয়ারির শেষ দিক থেকে আবারো সংক্রমণ বাড়তে শুরু করে। সোমবার একদিনেই নতুন সংক্রমিত হয়েছেন দুই হাজার ৮০৯ জন। আর মারা গেছেন ৩০ জন। যা গত সাত মাসের মধ্যে সবচেয়ে বেশি।

এদিকে গত বছর করোনায় আক্রান্ত রোগী বাড়তে থাকায় হাসপাতালগুলোতে কোভিড-১৯ রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া শুরু হয়। তবে পরবর্তীতে রোগীর সংখ্যা কমে আসায় এসব হাসপাতালে করোনা ইউনিটের পাশাপাশি অন্য রোগীদের জন্যও সেবা চালু করা হয়। তবে রোগী না পাওয়ায় গত বছরের সেপ্টেম্বরের শেষ দিকে কয়েকটি হাসপাতালে কোভিড-১৯ সেবা কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়া হয়।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ

x