আমেরিকান ইন্সটিটিউট অফ বাংলাদেশ স্টাডিজের ফেলোশিপ পাচ্ছেন যারা 

ফেসবুক
ফেলোশিপ   © সংগৃহীত

২০২১ -২০২২ শিক্ষাবর্ষের জন্য আমেরিকান ইন্সটিটিউট অফ বাংলাদেশ স্টাডিজ (AIBS) গ্র্যাজুয়েট ফেলোশিপ প্রাপ্তদের তালিকা ঘোষণা করা হয়েছে। বাংলাদেশি নাগরিকদের পেশাদার উন্নয়নে এই ফেলোশিপ দেওয়া হয়।

বুধবার ফেলোশিপ কর্মসূচিতে অংশগ্রহণকারীদের তালিকা প্রকাশ করা হয়। বাংলাদেশের চারজন শিক্ষাবিদ এ প্রোগ্রামের আওতায় এআইবিএস প্রফেশনাল ডেভেলপমেন্ট ফেলোশিপ পেয়েছেন। তারা ভিজিটিং ফেলো হিসেবে হোস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ে মার্কিন ফ্যাকাল্টি সদস্যদের সঙ্গে একত্রে কাজ করবেন।

ফেলোশিপপ্রাপ্তরা হলেন- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ এবং সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক কাজলী শেহরীন ইসলাম, সমাজকল্যাণ ও গবেষণা ইন্সটিটিউটের অধ্যাপক রবিউল ইসলাম, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের নগর ও গ্রামীণ পরিকল্পনা বিভাগের অধ্যাপক তানজিল সওগাত ও ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ফ্যাকাল্টি অফ অ্যালাইড হেলথ সাইন্সের ফার্মেসী বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম অভি।

ফেলোশিপ প্রাপ্তদের কাজগুলো হলো- গবেষণার এজেন্ডা তৈরি করা, লাইব্রেরি সুবিধা ব্যবহার করা, একাডেমিক লেখার উপর হাতে-কলমে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করা এবং প্রকাশনা।

আরও পড়ুন : ইন্টারন্যাশনাল লিডার এডওয়ার্ড পেলেন ঢাবির সাবেক শিক্ষার্থী আল মামুন রাসেল

এছাড়াও এআইবিএস গ্রাজুয়েট স্টুডেন্ট গবেষণা ফেলোশিপ ঘোষণা করা হয়েছে। সাত বাংলাদেশি পিএইচডি শিক্ষার্থী এ গবেষণা ফেলোশিপ পেয়েছেন। তারা হলেন- কানসাস বিশ্ববিদ্যালয়ে বুশরা নাঈম, সিরাকিউজ বিশ্ববিদ্যালয়ে ফারজানা কাজী, ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে মো. মিজানুর রহমান, টেক্সাসের অস্টিন বিশ্ববিদ্যালয়ে মো. মুহিব্বুর রহমান, ভার্জিনিয়া পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট ও স্টেট ইউনিভার্সিটিতে মো. শরিফুল ইসলাম, অস্টিনের টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয়ে শেহজাদ আরিফিন এবং ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে শরবানা তহুরা জামান।

এআইবিএসের সভাপতি আলী রীয়াজ জানান, ফেলোশিপ কর্মসূচির মাধ্যমে এআইবিএস বাংলাদেশি শিক্ষাবিদদের জন্য পেশাদার উন্নয়নের সুযোগ বৃদ্ধির মাধ্যমে বাংলাদেশের ওপর অত্যাধুনিক গবেষণাকে এগিয়ে নিতে চায়। তিনি এসব ফেলোশিপে তহবিল প্রদানের জন্য বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কেও ধন্যবাদ জানান।


সর্বশেষ সংবাদ