যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের অর্থায়নে স্কলারশিপ সম্পন্ন করলেন ৭৬ বাংলাদেশি শিক্ষার্থী

যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের অর্থায়নে স্কলারশিপ সম্পন্ন করলেন ৭৬ বাংলাদেশি শিক্ষার্থী
ভার্চুয়াল সমাবর্তন  © সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রের অর্থায়নে পরিচালিত ঢাকায় মার্কিন দূতাবাসের দুই বছরব্যাপী ইংলিশ অ্যাক্সেস মাইক্রো স্কলারশিপ প্রোগ্রাম সম্পন্ন করেছেন রাজশাহী ও চট্টগ্রামের ৭৬ জন শিক্ষার্থী।

আজ বুধবার ঢাকার মার্কিন দূতাবাস জানায়, মঙ্গলবার রাষ্ট্রদূত আর্ল মিলার আমেরিকার পররাষ্ট্র দফতরের (স্টেট ডিপার্টমেন্ট) অর্থায়নে পরিচালিত ইংলিশ অ্যাক্সেস মাইক্রো স্কলারশিপ প্রোগ্রামের কোর্স সম্পন্ন করা ৭৬ জন বাংলাদেশি শিক্ষার্থীকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

রাষ্ট্রদূত মিলার মহামারি চলাকালীন এই সময়েও কঠোর পরিশ্রমের মধ্য দিয়ে সফলভাবে কোর্স সম্পন্ন করায় রাজশাহী ও চট্টগ্রামের স্থানীয় মাদরাসা ও সরকারি স্কুলের ৩৮ জন তরুণী ও ৩৮ জন তরুণ শিক্ষার্থীর ভূয়সী প্রশংসা করেন।

অ্যাক্সেস প্রোগ্রাম সূচনালগ্ন থেকেই বিশ্বব্যাপী শিক্ষার্থীদের স্বপ্ন পূরণের লক্ষ্যে তাদের জীবনে পরিবর্তনের সুযোগ তৈরি করে দিচ্ছে উল্লেখ করে ভার্চুয়াল সমাবর্তনে রাষ্ট্রদূত মিলার বলেন, আমি বিশ্বাস করি এটি এমন একটি অর্জন যা আপনাদেরকে জীবনব্যাপী অনেক অর্জনের সূচনা করল মাত্র। আপনাদের প্রতি আমার সেই বিশ্বাস আছে এবং এই অসাধারণ যাত্রায় আপনাদের সহযোগিতা করা আপনাদের শিক্ষক, সহপাঠী ও প্রিয়জনরাও সেটিই বিশ্বাস করে।

“আপনারাই সেই মেধাবী এবং বুদ্ধিদীপ্ত নেতা যারা আগামীর বাংলাদেশের গতিপথ তৈরি করবেন। আপনারা আমাদের পৃথিবীর সর্বাধিক চ্যালেঞ্জপূর্ণ সমস্যাগুলোর সমাধানে সহায়তা করার মাধ্যমে পৃথিবীকে এগিয়ে নিতে নেতৃত্বদানকারী পরবর্তী প্রজন্ম। আপনারা অসাধারণ, যা এখনই পরিমাপযোগ্য নয়।”

উল্লেখ্য, ইংলিশ অ্যাক্সেস মাইক্রো স্কলারশিপ কর্মসূচি হলো একটি দুই বছরের কঠোর অনুশীলনের ইন্টারঅ্যাকটিভ কোর্স, যেখানে আর্থিকভাবে পিছিয়ে থাকা জনগোষ্ঠী থেকে আসা ১৩-১৭ বছরের শিক্ষার্থীরা অংশ নিয়ে ইংরেজি ভাষা শেখে, আমেরিকান সংস্কৃতি সম্পর্কে জানে, বিশ্লেষণী চিন্তা করার সামর্থ্য ও নেতৃত্বদানের দক্ষতা অর্জন করে এবং এসব কিছুই তাদেরকে উচ্চতর শিক্ষা অর্জন ও কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি করে দেয়।

দূতাবাস জানায়, বর্তমানে ঢাকা, সিলেট ও চট্টগ্রামে ২০০ শিক্ষার্থী অ্যাক্সেস কর্মসূচিতে ভার্চুয়ালি অংশগ্রহণ করছে। ২০০৪ সালে এই কর্মসূচি চালু হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত ১ হাজার ৩৩৬ জন বাংলাদেশি শিক্ষার্থী সফলভাবে এই কোর্স সম্পন্ন করেছে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ