মা বলে গিয়েছে বিয়ে করার দরকার নেই, সমিতি নিয়েই থাকো: জায়েদ

শিল্পী সমিতি
জায়েদ খান  © সংগৃহীত

শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক চিত্র নায়ক জায়েদ খান বলেছেন, কিছুদিন আগে করোনায় মাকে হারিয়েছি। রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থা মা বলেছিল, তোমার বিয়ে করার দরকার নেই, সমিতি নিয়েই থাকো।

রবিবার (২৩ জানুয়ারি) মিশা-জায়েদ প্যানেল পরিচিতি উপলক্ষে আয়োজিত সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

মায়ের এ কথা বলার কারণ হিসেবে জায়েদ খান বলেন, নিজের জন্য না ভেবে সবসময় এখানকার মানুষের জন্য কাজ করেছি, তাদের কথা ভেবেছি। করোনার মধ্যে মারা যাওয়া সকল শিল্পীর লাশ আমি কাধে বহন করেছি। সেই ব্যাথা এখনো আছে। কি করিনি এই সমিতির জন্য? কাজ বেশি করেছি বলে আমার সমালোচনাও বেশি হয়েছে।

আরও পড়ুন: শাবিপ্রবি ভিসির বাসার বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন

তিনি বলেন, এফডিসিতে কিছু কুকুর ছিল। তারা না খেয়ে মারা যাচ্ছিল। বাড়ি থেকে রান্না করে এনে তাদের খাইয়েছি। আমি যদি একটাও মিথ্যা কথা বলি তাহলে আমার মা-বাবার মৃত আত্মা যেন শাস্তি পায়।

আবেগঘন কন্ঠে তিনি বলেন, আমি যে বোনের কাছে বড় হয়েছি সে এখন ক্যান্সার আক্রান্ত। কয়েকদিম আগে আমাকে যখন শিমু হত্যায় ফাঁসানোর চেষ্টা করা হলো তখন আমার বোন বলেছিল ভাই তুই এসবের মধ্য থেকে বের হয়ে আয়। আমরা তোকে হারাতে চাই না। সমিতির দরকার নেই।

আরও পড়ুন: উপাচার্যের পদত্যাগ চেয়ে দ্রুত সরকারকে ব্যবস্থা নিতে বললো শিক্ষক সমিতি

নির্বাচনকে কেন্দ্র করে তাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হয়েছে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, আমি এখন এতিম। এই সমিতিই এখন আমার পরিবার। সুচরিতা আপা আমাকে ছেলে বলেছেন। তার মতো লিজেন্ডরা পাশে আছে বলে আমি আবার নির্বাচনে অংশ নিচ্ছি। না হলে এবার নির্বাচনে আসতাম না।


x

সর্বশেষ সংবাদ