নিজের পারফর্মেন্স নিয়ে টিকতেই পারছেন না নেইমার

খেলাধুলা
নেইমারের ইনজুরি নিয়ে এবার লিখলেন জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী আসিফ আকবর  © সংগৃহীত

ফুটবল জ্বরে কাঁপছে পুরো বিশ্ব। পিছিয়ে নেই বাংলাদেশিরাও। বিশ্বকাপকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশি তারকাদের মধ্যেও রয়েছে বেশ উত্তেজনা। সাধারণ দর্শক থেকে মিডিয়া ব্যক্তিত্ব, সবাই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম গরম করে রাখে বিভিন্ন পোস্টে। সবাই নিজের সমর্থন করা দলকে নিয়ে আনন্দ উল্লাস করে থাকেন। 

সার্বিয়ার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে নেইমারের ইনজুরি নিয়ে এবার লিখলেন জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী আসিফ আকবর। তিনি বলেন, নেইমারকে নিয়ে অনেক মজা চলে, চলতেই পারে। কিন্তু নিজের পারফর্মেন্স নিয়ে টিকতেই পারছেন না নেইমার।

সার্বিয়ার বিপক্ষে ২-০ গোলের জয় দিয়ে বিশ্বকাপে উড়ন্ত শুরু করে ব্রাজিল। তবে এ ম্যাচেই ইনজুরিতে পড়েন নেইমার। ডান পায়ের গোড়ালির ইনজুরির কারণে গ্রুপ পর্বের দ্বিতীয় ম্যাচ মিস করবেন নেইমার। তৃতীয় ম্যাচেও তাকে দলে পাওয়া নিয়ে বড় সন্দেহ আছে। 

এ নিয়ে সঙ্গীত শিল্পী আসিফ আকবর তার ফেসবুক টাইমলাইনে লিখেছেন, খেলোয়াড় আসে যায়, কেউ কিংবদন্তী হয় কেউ শুধুই খেলোয়াড়ই রয়ে যায়। নেইমারকে নিয়ে অনেক মজা চলে, চলতেই পারে।

২০১৪ বিশ্বকাপে ছেলেটার টূর্ণামেন্ট বীভৎসভাবে বরবাদ করলো এক কলাম্বিয়ান। এবারও প্রথম খেলাতেই সার্বিয়ার সাথে নয়টা ফাউলের মুখোমুখি হয়ে আগামী দুই ম্যাচ খেলতে পারবেনা নেইমার। 

আহত হওয়া খেলার অংশ, নেইমারকে নিয়ে মজা করাও খেলার অংশ। মজা করতে করতে একটা ছেলের নৈপূন্যকে গ্রাস করে নেয়া কতটুকু স্পোর্টিং সেটা জানিনা। নেইমার সেলফিশ প্লেয়ার না। গ্রেট লিওনেল মেসি তার বন্ধু এবং বার্সা পিএসজি টিমমেট। আরেক ব্রাজিলিয়ান লিজেন্ড রোনাল্ডিনিও ছিল মেসির গুরু।

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপের ম্যাচ থেকে ছিটকে গিয়ে নেইমারের আবেগঘন বার্তা

দিনশেষে তারা আসলে প্রতিযোগী, প্রতিদ্বন্দী নয়। তারা বন্ধু, খেলোয়াড়সুলভ মানসিকতা তাদের অস্তিত্বে বিরাজমান। আমরাও দল সমর্থনে অন্ধ হতে পারি, স্বাভাবিক ব্যাপার। একটা স্কিলড খেলোয়াড় তার পারফর্মেন্স নিয়ে টিকতেই পারছেনা, এটা দূঃখজনক। 

বিশ্বসেরাদের খেলোয়াড়ি প্রদর্শনের শ্রেষ্ঠ মঞ্চ এই গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ, বিশ্বকাপ ফুটবল। মজায় মজায় অবমূল্যায়িত হয়েই যাচ্ছে ক্ষণজন্মা প্রতিভাগুলো। ব্রাজিল একটি সংঘবদ্ধ টিম, এখানে এককভাবে কেউই সুপার হিরো নয়। নেইমারের উপস্থিতি দলের জন্য শুধুই আত্মবিশ্বাস তৈরীর বিশেষ মাত্রা, নির্ভরতা নয়।

সে আগামী দু’ম্যাচ খেলতে পারবেনা, এতে কার কি লাভ জানিনা, যারা এতে আনন্দিত তাদের অভিনন্দন। ব্রাজিল সেকেন্ড রাউন্ডে উঠলে আরো একবার নেইমারকে দেখতে চাই মাঠে, কে জানে ভবিষ্যত কি ! ফিরে এসো নেইমার, ফুটবল তোমাকে ভালবাসে। তুমি  অসাধারন কেউ নও, আবার অতি সাধারনও নও, তুমি বিশ্ব ফুটবলের এক দূখী রাজকুমার…

ভালবাসা অবিরাম…


সর্বশেষ সংবাদ