চুয়েটে হেলমেট বাহিনীর মহড়া, আতঙ্কিত শিক্ষার্থীরা

চুয়েট
হলুদ হেলমেট মাথায় দিয়ে মহড়া  © টিডিসি ফটো

আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের মহড়া, অস্ত্র নিয়ে টহল দেওয়াকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট) ক্যাম্পাস। গত শনিবার থেকে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল ও চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র আ জ ম নাসির উদ্দিনের অনুসারীদের মধ্যে বাক-বিতণ্ডার পর এ ঘটনার সূত্রপাত বলে জানা গেছে।

এ ঘটনার জেরে রবিবার ক্যাম্পাসের কয়েজন শিক্ষার্থীকে মারধার করা হয়। ক্যাম্পাসের অস্থিতিশীল পরিস্থিতির অভিযোগ এনে পরদিন সোমবার (১৩ জুন) থেকে সাধারণ শিক্ষার্থীরা ক্লাস বর্জন করেছে।

এদিকে, আজ মঙ্গলবার আজ ভোররাত থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের গোলচত্বরে হেলমেট পরিহিত একটি গ্রুপকে অবস্থান করতে দেখা যায়। সকালে চুয়েট থেকে চট্টগ্রাম শহরগামী শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারী সকল বাস আটকিয়ে তা পুনরায় গ্যারেজে ফেরত পাঠায় তারা। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রকল্যাণ পরিচালক অধ্যাপক ড. রেজাউল করিম। এ ঘটনায় শিক্ষার্থীরা আতঙ্কিত, ক্যাম্পাসের শিক্ষা-কার্যক্রম ব্যহত হওয়ার শঙ্কা তাদের।

অধ্যাপক ড. রেজাউল করিম বলেন, আজ মঙ্গলবার সকালে গোলচত্বরে অবস্থান নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের একটি গ্রুপ চুয়েট থেকে চট্টগ্রাম শহরমুখী শিক্ষক, কর্মকর্তা, শিক্ষার্থী ও কর্মচারীদের বাস আটকে রেখেছিল। বাসগুলো পুনরায় বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্যারেজে ফেরত পাঠানো হয়েছে। আজ সকালে বাসগুলো আর যাবে না। সম্ভব হলে বিকেল বেলার বাসগুলো যেতে পারে।

তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী না আসলে ক্লাস হয় না। বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন বিভাগে ছোট ছোট কিছু পরীক্ষা আছে, তাতে সমস্যা হবে না। আজ সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন, ডিন ও পরিচালকদের সঙ্গে মিটিং রয়েছে।  

চট্টগ্রামের সহকারী পুলিশ সুপার (রাঙ্গুনিয়া সার্কেল) মো. আনোয়ার হোসেন শামীম বলেন, চুয়েটে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে আমাদের পর্যাপ্ত পুলিশ মোতায়ন রয়েছে।  


x

সর্বশেষ সংবাদ