এই বয়সে শিক্ষার্থীদের উত্তেজনা থাকতেই পারে: শাবির ঘটনায় মান্নান

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান
পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান  © ফাইল ছবি

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (শাবিপ্রবি) শিক্ষার্থীদের উপর হামলার ঘটনার দুঃখ প্রকাশ করেছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। তিনি বলেছেন, শিক্ষার্থীরা আমাদের সন্তান। বৃহস্পতিবার (২০ জানুয়ারি) সিলেট নগরীর পাঠানটুলা এলাকায় একটি মাদ্রাসার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, এই বয়সে তাদের একটু উত্তেজনা থাকতেই পারে। একটু সময় দিয়ে, বুঝিয়ে, তাদের সঙ্গে কাজ করে সব সমাধান করতে হবে। কোনো হঠকারী বিষয় যেন তাদের ওপর চাপিয়ে না দেওয়া হয়। ধৈর্যের মাধ্যমে মোকাবিলা করতে হবে। শাবির ঘটনায় যেন আগুনে ঘি না ঢালা হয়।

আরও পড়ুন: শাবিপ্রবিতে অনশনরত আরও এক শিক্ষার্থী অসুস্থ

তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়টিতে শিক্ষার্থীদের উপর হামলার যে ঘটনা ঘটেছে, তার জন্য আমি খুবই দুঃখিত। শিক্ষার্থীরা আমাদের সন্তান। তাদের ছেড়ে যেতে আমরা পারি না। তাদের মঙ্গল আমরা চাই। সুতরাং এই ব্যাপারে মুখোমুখি না হয়ে বসে আলোচনা করে সমাধান করা উচিত।

শিগগিরই শাবিপ্রবি সঙ্কট কেটে যাবে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ইতোমধ্যে আমাদের সরকারের উচ্চ পর্যায় থেকে সমাধানের জন্য প্রতিনিধি দল পাঠানো হয়েছে। তারা খোঁজখবর নিচ্ছে। তা ছাড়া এই আসনের সংসদ সদস্য পররাষ্ট্রমন্ত্রীও বিষয়টি সমাধানে খুবই আন্তরিক। সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সবার সঙ্গে আলোচনা করে একটা সমাধান করতে পারবেন।

আরও পড়ুন: উপাচার্যের অপসারণে কোনো তদন্ত কমিটি চান না আন্দোলনকারীরা

এম এ মান্নান জানান, প্রতিক্রিয়াশীল দল সব সময় আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে কিছু হলে আঙুল দেবে। তারা তো বাংলাদেশকে নিজের দেশ মনে করে না। তাদের ধারণা, বাংলাদেশ থেকে অন্য দেশ আরও উত্তম। কেউ কেউ অন্য দেশকে স্বর্গ মনে করে।

মন্ত্রী অভিযোগ করে আরও বলেন, প্রতিক্রিয়াশীল ও আধা প্রতিক্রিয়াশীল সুবিধাবাদী কিছু চক্র আছে, যারা নানাভাবে ঘোলাটে পরিবেশ সৃষ্টি করে ক্ষমতায় যাওয়ার পথ খুঁজতেছে। তারা সুযোগ নেবে, এটাই রাজনীতির নিয়ম। তবে আমি উন্নয়নে বিশ্বাসী। উন্নয়ন আমার শখ ও অভিলাষ। প্রতিক্রিয়াশীলদের মোকাবিলা করার ক্ষমতা আওয়ামী লীগের রয়েছে।

আরও পড়ুন: সাড়ে ৪ বছরের ক্ষোভের বিস্ফোরণেই শাবিপ্রবিতে আন্দোলন-অনশন

এদিকে, বিশ্ববিদ্যালয়টির উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিনের পদত্যাগের এক দফা দাবিতে আমরণ অনশন করেছেন শিক্ষার্থীরা। এত আজ বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত অন্তত ৩ জন শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তাদের অ্যাম্বুলেন্সে করে সিলেটের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।


x

সর্বশেষ সংবাদ