আন্দোলনকারীদের অনশন ভাঙাতে ব্যর্থ হয়ে ফিরে গেলেন শাবিপ্রবি শিক্ষকেরা

শাবিপ্রবি
শিক্ষার্থীদের অনশন ভাঙাতে এসে ব্যর্থ হয়ে ফিরে যান শিক্ষকেরা  © সংগৃহীত

তিন ঘণ্টা অবস্থান করে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের অনশন ভাঙাতে ব্যর্থ হয়ে ফিরে গেলেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) শিক্ষকদের একটি প্রতিনিধি দল। বুধবার (১৯ জানুয়ারি) রাত পৌনে ৯টা থেকে সাড়ে থেকে ১২টা পর্যন্ত তারা শিক্ষার্থীদের অনশন ভাঙাতে এসে ব্যর্থ হয়ে ফিরে যান। এমনকি শিক্ষার্থীরা তাদের কথা বলারও সুযোগ দেননি। বরং তাদের ফিরে যেতে একযোগে করোজোরে মিনতি করেন।
 
আন্দোলনরত শিক্ষকরা বলেন, ভিসির পদত্যাগে তাদের একদফা আন্দোলনের সঙ্গে একাত্মতা জানালে শিক্ষকদের কথা বলার সুযোগ দেবেন। শিক্ষকদের জবাব জানতে ‘ইয়েস অর নট’ স্লোগান দেন শিক্ষার্থীরা।
 
শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে শিক্ষার্থীরা বলেন, আপনারা আমাদের অভিভাবক, প্রিয় শিক্ষক, সর্বোচ্চ সম্মানের জায়গা, আপনাদের হৃদয় দিয়ে ভালোবাসি। অনেকক্ষণ ধরে অনশন করে কিছুই খাওয়া হয়নি। আমাদের বাঁচান। এরপর‌ই ‘ইয়েস অর নো’ স্লোগানে শাবিপ্রবি ক্যাম্পাস প্রকম্পিত হয়ে উঠে।
 
এসময় শিক্ষক প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বে থাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ারুল ইসলাম হ্যান্ড মাইক নিয়ে কথা বললেও বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদের স্লোগানে তা ম্লান হয়ে যায়। প্রায় তিন ঘণ্টা শিক্ষকেরা আন্দোলনস্থলে অবস্থান করেন। আর তাদের উদ্দেশ্যে শিক্ষার্থীরা দু’হাত উঠিয়ে করজোড়ে চলে যেতে অনুরোধ করেন।

এ সময় কোষাধ্যক্ষ বলেন, আমরা এসেছিলাম আমাদের শিক্ষার্থীদের অনশন ভাঙাতে। আমরা তাদের কাছে সে সময়টুকু চেয়েছি যেন এ ঘটনার পেছনে কারা জড়িত সেটা খুঁজে বের করতে পারি। শিক্ষার্থীরা আমাদের ওই সুযোগটা দেয়নি। আমরা আবার চেষ্টা করব, যেন তাদের বুঝাতে পারি।

এর আগে বিকেল ৩টার দিকে শিক্ষার্থীরা আমরণ অনশন শুরু করেন। মঙ্গলবার রাত সোয়া ১০টার দিকে উপাচার্যকে পদত্যাগের জন্য বুধবার দুপুর ১২টা পর্যন্ত সময়ে বেধে দিয়েছিলেন। দাবি না মানলে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা আমরণ অনশনের ঘোষণা দিয়েছিলেন।


x

সর্বশেষ সংবাদ