ইনোভেশনসহ সব কাজেই প্রথম শাবি: উপাচার্য

উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ
উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ  © ফাইল ছবি

শাহাজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (শাবিপ্রবি) উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেছেন, ক্যাম্পাসে একটি ইনোভেশন তৈরি হবে। বিষয়টি এখন প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। রবিবার (২৭ নভেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের মিনি অডিটোরিয়ামে মোবাইল গেম ডেভেলপমেন্ট বিষয়ক এক প্রশিক্ষণ কর্মশালায় এ তথ্য জানান তিনি।

উপাচার্য বলেন, শাবিপ্রবিকে পেপারলেস ডিজিটাল ক্যাম্পাসে পরিণত করতে ‘টোটাল সাস্ট’ নামে একটি প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে শুধু প্রতিষ্ঠার দিক থেকে প্রথম নয়, ইনোভেশনসহ সব কাজেই আমরা প্রথম।

তিনি আরও বলেন, এ ধরনের প্রশিক্ষণ কর্মশালা সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশের কার্যক্রমকে সফল করতে ভূমিকা রাখবে। তথ্য ও প্রযুক্তি সেক্টরের কাজের গুরুত্ব অনুধাবন করে ইতোমধ্যে আমরা সিলেটের আইটি পার্কে ৪০০০ বর্গফুট জায়গা বরাদ্দ নিয়েছি। যার লক্ষ হচ্ছে শিক্ষা ও গবেষণায় উদ্ভাবনী কাজ করা।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ‘মোবাইল গেইম অ্যাপ্লিকেশনের দক্ষতা উন্নয়ন’ প্রকল্পের পরিচালক যুগ্ম সচিব মো. আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, বিশ্বের গেম ইন্ডাস্ট্রি অনেক বড়। সেখানে ২০০ বিলিয়ন ডলারের বিজনেস হয়। এতে আমাদের অংশগ্রহণ এখনও আশানুরূপ নয়। সরকার এজন্য দক্ষ জনশক্তি গড়ার জন্য কাজ করছে। শাবিপ্রবির তরুণরা এক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে।

সাস্ট এসোসিয়েশন অব কম্পিউটিং মেশিনারি (এসিএম) স্টুডেন্ট চ্যাপ্টার এ প্রশিক্ষণের আয়োজন করে। প্রশিক্ষণে সহযোগিতায় ছিলেন ডেভেলপমেন্ট প্রতিষ্ঠান মার্স সলিউশন লিমিডেট ও শেডো হোয়াইট লিমিটেডে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং (সিএসই) বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. আব্দুল্লাহ আল মুমিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন অ্যান্ড কমিউনিকেশন টেকনোলজির (আইআইসিটি) পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. জহিরুল ইসলাম, শাবিপ্রবির গেম ডেভেলপমেন্ট ল্যাবের কো-অর্ডিনেটর অধ্যাপক ড. ফরহাদ রাব্বী উপস্থিত ছিলেন।


x

সর্বশেষ সংবাদ