বাসে পর্নোগ্রাফি দেখছিলেন যুবক, শাবিপ্রবি ছাত্রীর প্রতিবাদে এখন কারাগারে

করোনা
পর্নোগ্রাফি  © প্রতীকি ছবি

সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের চতুর্থ বর্ষে পড়ুয়া এক ছাত্রীর সাথে আপত্তিকর আচরণ, বাসে বসে পর্নোগ্রাফি দেখা ও বাসে অসামাজিক কর্মকাণ্ডের অভিযোগে এক তরুণকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

জানা যায়, সোমবার রাতে চট্টগ্রাম থেকে বাসে করে সিলেটে আসছিলেন শাবিপ্রবির ওই ছাত্রী। বাসে ওঠার কিছুক্ষণ পরেই তার সামনের আসনে বসা এক যুবক ওই তরুণীকে দেখিয়ে মোবাইল ফোনে আপত্তিকরভাবে পর্নোগ্রাফি ভিডিও দেখতে শুরু করেন। তরুণী প্রতিবাদ করে তাকে ভিডিও বন্ধ করার অনুরোধ করেন। কিন্তু মাহবুবুর রহমান নামের ওই যুবক ভিডিও বন্ধ না করে ছাত্রীকে উত্যক্ত করেন। পরে ওই তরুণী বিষয়টি গাড়ির চালকের সহযোগীকে জানান।

তরুণীর সিট বদলে আরেকজন নারীর পাশের আসনে বসানো হয়। মৌলভীবাজারের শেরপুর এলাকায় গাড়িটি আসার পর মাহবুবুর গাড়ি থেকে নামতে চাইলে তরুণী বাধা দেন এবং একপর্যায়ে হইহুল্লোড় শুনে মহাসড়কে দায়িত্বরত শেরপুর হাইওয়ে থানার মো. শিবলু মিয়া এগিয়ে আসেন। ঘটনাটি জানতে পেরে পুলিশ সুপার তাৎক্ষণিকভাবে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন।

শেরপুর হাইওয়ে থানার ওসি মো. নবীর হোসেন গণমাধ্যমকে বলেন, ঘটনাটি মৌলভীবাজার সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) জানান তিনি। এরপর আজ সকাল ৭টা ২০ মিনিটে শেরপুরে উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোস্তাফিজুর রহমান আসেন। তিনি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে মাহবুবুরকে ৩ মাসের কারাদণ্ড, ১০ হাজার টাকা জরিমানা এবং অনাদায়ে আরও ১ মাসের কারাদণ্ড দেন। পরে কারাদণ্ডপ্রাপ্ত যুবককে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।


x