ঢাকা বিভাগীয় শ্রেষ্ঠ রোভার বশেমুরবিপ্রবির সাকিব

ঢাকা বিভাগীয় শ্রেষ্ঠ রোভার বশেমুরবিপ্রবির সাকিব
সাকিব হোসেন হৃদয়  © টিডিসি ফটো

‘বাংলাদেশ স্কাউটস রোভার অঞ্চল’ কর্তৃক 'ইনোভেটিভ ও পারফর্মেন্স অ্যাওয়ার্ড' এর জন্যে মনোনীত হয়েছেন গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) শিক্ষার্থী সাকিব হোসেন হৃদয়।

বশেমুরবিপ্রবির আইন বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র সাকিব প্রথমবারের মত গোপালগঞ্জ জেলা থেকে কোন রোভার হিসেবে এই অ্যাওয়ার্ডের জন্য মনোনীত হয়েছেন। রোববার (১৭ অক্টোবর) বাংলাদেশ স্কাউটস রোভার অঞ্চলের সম্পাদক প্রফেসর এ. কে. এম সেলিম চৌধুরী তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন।  

ইনোভেটিভ কার্যক্রমে অনুপ্রেরণা দেওয়ার জন্য 'বাংলাদেশ স্কাউটস রোভার অঞ্চল' থেকে প্রতিবছর ইনোভেটিভ ও পারফর্মেন্স অ্যাওয়ার্ড দেওয়া হয়। এক্ষেত্রে প্রতি বিভাগে একজন করে শ্রেষ্ঠ রোভারকে মনোনীত করা হয়। এবছরে ঢাকা বিভাগের সেই শ্রেষ্ঠ রোভার হলেন সাকিব।

শ্রেষ্ঠ রোভার হয়ে সাকিব তার কৃতিত্ব অন্য রোভারমেটদের দিয়েছেন। সাকিব বলেন, এই অর্জনের আনন্দ সত্যিই বোঝানো সম্ভব নয়। এ অর্জন শুধু আমার নয়, বশেমুরবিপ্রবি রোভার স্কাউট গ্রুপের, বাংলাদেশ স্কাউটস গোপালগঞ্জ জেলা রোভারের। বিশেষ করে আমার বাবা-মা সহ সে সকল মানুষ যারা আমাকে সার্বক্ষণিক সহযোগিতা করেছেন, সাহস যুগিয়েছেন তাদের কাছে আমি চির কৃতজ্ঞ।

পরিশ্রম ও দায়িত্ববোধ তাকে আজকের অবস্থানে নিয়ে এসেছে উল্লেখ করে সাকিব জানান, রোভারিং জীবনে প্রতিটি বাঁধাই তাকে নতুন উদ্যমে কাজ করার অনুপ্রেরণা দিয়েছে। রোভারিং এমন একটি জায়গা যেটি প্রতিনিয়ত একজনকে সৎ, সাহসী, দক্ষ, বিনয়ী, সাংগঠনিক ও আত্মমর্যাদা সম্পন্ন হিসেবে গড়ে তুলতে সহায়তা করে।

এই সফলতা তার বিশ্ববিদ্যালয় ও গোপালগঞ্জ জেলা রোভারে অব্যাহত থাকবে এমন প্রত্যাশা করছেন সাকিব। সেই সাথে রোভার স্কাউটের সর্বোচ্চ অ্যাওয়ার্ড 'প্রেসিডেন্টস রোভার স্কাউট (পিআরএস)' অর্জনের লক্ষ্যও আছে সাকিবের। এজন্য সকলের দোয়া চেয়েছে সে।

সাকিবের সাফল্যের খবরে বশেমুরবিপ্রবির সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক এবং গোপালগঞ্জ জেলা রোভার সম্পাদক মো: মজনুর রশিদ বলেন, সাকিব অত্যন্ত পরিশ্রমী এবং উদ্যমী একজন রোভার। আমরা অত্যন্ত কাছ থেকে তার পরিশ্রম দেখেছি। তার এই অর্জনে আমরা গর্বিত। তার এই অর্জন গোপালগঞ্জ জেলার রোভারদের আরও অনুপ্রাণিত করবে এবং আমরা আশা করছি তার মাধ্যমে যে অর্জন শুরু হয়েছে তার ধারাবাহিকতা ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে।


মন্তব্য

x