সংখ্যালঘুদের উপর হামলার প্রতিবাদে বশেমুরবিপ্রবিতে মানববন্ধন

করোনা
শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ কর্মসূচি   © টিডিসি ছবি

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব দুর্গা পূজাকে বানচাল ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রতি নষ্ট করতে কুমিল্লা, নোয়াখালী, চাঁদপুর, বান্দরবান, ফেনী, রংপুর সহ সারাদেশে পূজা মন্ডপে হামলা, প্রতিমা ভাঙচুর বসতবাড়িতে অগ্নিসংযোগ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান লুটপাট ও নিরীহ মানুষ হত্যার প্রতিবাদে গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) সাধারণ শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ কর্মসূচি পালন করেছেন।

আজ (১৮ অক্টোবর) দুপুর ২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এসময় সাধারণ শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরাও উপস্থিত ছিলেন।

মানববন্ধনে সাধারণ শিক্ষার্থীরা বলেন, বাংলাদেশের সংবিধান অনুযায়ী যার যার নিজ ধর্ম পালন করতে পারবে এবং প্রতিটি নাগরিকদের স্বাধীনভাবে সম-অধিকার নিয়ে বাঁচার অধিকার আছে। কিন্তু বর্তমানে সংখ্যালঘুদের উপর অব্যাহতভাবে নির্মম অত্যাচার, সহিংসতার ঘটনা ঘটছে। কিন্তু একটা ঘটনারও সুষ্ঠু বিচার পাওয়া যায় নাই। এক্ষেত্রে বর্তমান সরকার প্রশাসন ও মিডিয়ার ভূমিকাও প্রশ্নবিদ্ধ।

তারা আরও বলেন, আমরা সংখ্যালঘুদের উপর হামলার তীব্র নিন্দা জানাই। এ সকল ঘটনার তদন্তপূর্বক দোষীদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই এবং অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে সকলের সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জোর দাবি জানাই।

এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মিলন মন্ডল বলেন, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে এসে আজকে আমাদের মা বোন কেউ নিরাপদ নয়। আমরাও সরকারকে ভ্যাট ট্যাক্স সব দিয়ে থাকি তাই এদেশে সাধারণ মানুষ হিসেবে আমাদের ও স্বাধীন নাগরিক হিসেবে বেঁচে থাকার অধিকার আছে।

এ সময় তিনি আরও বলেন, সম্প্রতি কুমিল্লা, ফেনী, রংপুর, চট্টগ্রামসহ সারাদেশে সংখ্যালঘু সাধারণ মানুষের উপর যে অত্যাচার হয়েছে তার সঠিক তদন্তের মাধ্যমে বিচারের দাবি জানাচ্ছি।


মন্তব্য

x