‌‘উপস্থিতি প্রমাণ করে গুচ্ছ পরীক্ষায় শিক্ষার্থীরা অনেক আগ্রহী’

ভর্তি পরীক্ষা
বিভিন্ন পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন মাভাবিপ্রবি উপাচার্য  © সংগৃহীত

দেশে প্রথমবারের মতো ২০টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রথম ‘ক' ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়েছে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা। অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রের ন্যায় মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়েও (মাভাবিপ্রবি) শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে এই পরীক্ষা।

গতকাল রবিবার (১৭ অক্টোবর) এ ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় ক্যাম্পাসস্থ বিভিন্ন পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন মাভাবিপ্রবি উপাচার্য (অতিরিক্ত দায়িত্ব) প্রফেসর ড. এ আর এম সোলাইমান এবং গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা কমিটির আহ্বায়ক ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মুনাজ আহমেদ নুর।

এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন।

কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে মাভাবিপ্রবি উপাচার্য বলেন, শিক্ষার্থীদের সন্তোষজনক ও ৯০ ভাগেরও বেশি উপস্থিতি প্রমাণ করে গুচ্ছ পরীক্ষায় শিক্ষার্থীরা অনেক আগ্রহী যা গুচ্ছবিহীন ভর্তি পরীক্ষায় কখনো দেখা যায়নি। শিক্ষার্থীদের কষ্ট ও দূর্ভোগ লাঘবে ২০ টি বিশ্ববিদ্যালয়ের একসঙ্গে ভর্তি পরীক্ষা মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছার কারণেই সম্ভব হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, সাধারণ শিক্ষার্থীদের কথা ভেবে সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় এইভাবে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা নিলে এক বিরাট সাফল্য হবে।

এছাড়া মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে শান্তিপূর্ণভাবে পরীক্ষা সম্পন্ন করার জন্য সংশ্লিষ্ট সকল শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

এরপর গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা কমিটির আহবায়ক ও বিডিইউ উপাচার্য মাভাবিপ্রবি কেন্দ্রের কার্যক্রম পরিচালনার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, বাংলাদেশের জন্য এটি একটি ঐতিহাসিক দিন যা আমরা ১০ বছর ধরে বাস্তবায়নের চেষ্টা করছিলাম। এই দিনটি ইতিহাসে ভর্তি পরীক্ষার ক্ষেত্রে সফলতম দিন হিসেবে স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

এছাড়া ভর্তি পরীক্ষা বাস্তবায়নে সহযোগিতা ও শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য জনপ্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানান তিনি।


মন্তব্য

x