৫ সেপ্টেম্বর নয়, বিশ্ব শিক্ষক দিবস ৫ অক্টোবর

ফেসবুক
ফেসবুক পোস্ট  © স্ক্রিনশট

‘নবাবগঞ্জ গভর্নমেন্ট পাইলট হাইস্কুল, দিনাজপুর’ নামের একটি ফেসবুক পেজে রোববার বিকেলের একটি পোস্টে আজ বিশ্ব শিক্ষক দিবস বলে দাবি করা হয়েছে। অথচ বিশ্ব শিক্ষক দিবসের আরও এক মাস বাকি রয়েছে। বিশ্বব্যাপী শিক্ষক দিবস পালিত হয় প্রতি বছরের ৫ অক্টোবর।

আজ বিশ্ব শিক্ষক দাবি করে বেশকিছু ফেসবুক একাউন্ট ও পেজ থেকে পোস্ট দেওয়া হয়। দেখুন এখানে, এখানেএখানে এবং এখানে

জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি বিষয়ক সংস্থা (ইউনেসকো), আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা (আইএলও) এবং এডুকেশন ইন্টারন্যাশনালের আহ্বানে ১৯৯৬ সাল থেকে ৫ অক্টোবর বিশ্ব শিক্ষক দিবস পালিত হয়।

ইউনেসকো’র ওয়েবসাইটের তথ্য মতে, শিক্ষকদের জীবনমান ও সামগ্রিক অবস্থার উন্নয়নে ১৯৬৬ সালে কিছু সুনির্দিষ্ট প্রস্তাবনা পেশ করে আইএলও এবং ইউনেসকো। এই প্রস্তাবনা বাস্তবায়নের অগ্রগতি পর্যবেক্ষণ করা হয় প্রতি বছর বিশ্ব শিক্ষক দিবসে।

তবে পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত ৫ সেপ্টেম্বর শিক্ষক দিবস পালন করে থাকে।

ইউনেসকোর ওয়েবসাইটের স্ক্রিনশট

বাংলাদেশেও প্রতি বছর ৫ অক্টোবর নানা আনুষ্ঠানিকতায় বিশ্ব শিক্ষক দিবস পালিত হয়। গত বছর ৫ অক্টোবর দেশের শীর্ষস্থানীয় সংবাদমাধ্যম প্রথম আলোয় দিবসটি উপলক্ষে ‘শিক্ষকদের পদোন্নতিতে বঞ্চনা’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন এবং‘মেধাবীরা শিক্ষকতা থেকে দূরে কেন?’শিরোনামে একটি মতামত ছাপা হয়।

কয়েকটি ফেসবুক পোস্টের স্ক্রিনশট

আজ রোববার নবাবগঞ্জ গভর্নমেন্ট পাইলট হাইস্কুল ফেসবুক পেজের পোস্টে বলা হয়, ‘আজ ৫-ই সেপ্টেম্বর বিশ্ব শিক্ষক দিবস। মানুষ গড়ার কারিগর একেকজন আদর্শবান মহান শিক্ষক বেচে থাকুক তার শিক্ষার্থীর মাঝে;জাতির মাঝে। তাদের হাতেই আমাদের সাফল্যের কাঠি। তাই বিনম্র শ্রদ্ধা সেই সকল শিক্ষকগনের প্রতি যারা জীবিত কিংবা মৃত।

এই পোস্টে স্কুলটির একজন জনপ্রিয় শিক্ষকের ছবি সংযুক্ত করে তাঁর প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করা হয়। পোস্টটির মন্তব্যের ঘরে ওই শিক্ষকের মহানুভবতার কথা তুলে ধরেন অনেক শিক্ষার্থী।

পোস্টটির নিচে ইংরেজিতে আহসান আহমেদ, এসএমএএমসিএইচ উল্লেখ করা থাকলেও এই নামে কোনো ফেসবুক একাউন্ট বা পেজ খুঁজে পায়নি দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাস ফ্যাক্টচেক।

ফেসবুক পোস্টের স্ক্রিনশট

মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ