শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের ৫০০তম দিন পূর্ণ হয়েছে?

করোনা ভাইরাস
২০২০ সালে ১৭ মার্চ থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ রয়েছে  © সংগৃহীত

নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে গত বছরের মার্চ মাসের মাঝামাঝি থেকে বন্ধ রয়েছে দেশের সব ধরণের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। চলতি বছরের শুরুর দিক পরিস্থিতি উন্নতি হলে পরবর্তীতে সশরীরে কিছু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে (বিশ্ববিদ্যালয়) একাডেমিক পরীক্ষা নিলেও বন্ধ ছিল সব ধরণের ক্লাস। তবে অনলাইন, টেলিভিশনসহ ডিজিটাল প্লাটফর্মে চলছে শ্রেণি কার্যক্রম। 

এদিকে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি দফায় দফায় বাড়ানোর পর সর্বশেষ আগামী ৩১ জুলাই পর্যন্ত করা হয়েছে। অন্যদিকে, আগামী ১ আগস্ট থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলছে না সেটি এক ধরনের নিশ্চিতভাবে বলা যায়। কারণ আজ শুক্রবার (২৩ জুলাই) ভোর থেকে শুরু হওয়া কঠোর লকডাউন আগামী ৫ আগস্ট দিবাগত রাত ১২টা পর্যন্ত বহাল থাকবে। এ কারণে আরেক দফায় বাড়ছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের চলমান ছুটি। তবে ছুটি বাড়ানো ব্যাপারে এখনও নতুন কোন ঘোষণা দেয়নি শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

তথ্য মতে, দেশে করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হবার পর ২০২০ সালে ১৭ মার্চ থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ রয়েছে। ১৬ মার্চ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়। পরে এ বিষয়েসচিবালয়ে ব্রিফিং করে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জানান, ১৭ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মন্ত্রিসভা। এরপর করোনার সংক্রমণ না কমায় দফায় দফায় ছুটি বাড়িয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। 

শিক্ষার্থী-অভিভাবকরা বিভিন্ন সময়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার দাবি জানিয়ে আসছে। সংসদেও দাবি ওঠে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমসহ গণমাধ্যমেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে দাবি জানানো হয়েছে। তবে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না আসা পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলতে অনাগ্রহ সরকারের।

এদিকে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার ফের দাবি উঠেছে সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমে। এতে অনেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের ৫০০তম দিন পূর্ণ হওয়ায় অভিনন্দন জানিয়েছে। আবার অনেকেই ১০০০তম দিনের মাইল ফলক দেখারও অপেক্ষায় রয়েছেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) স্বপ্ন পূরণ নামে এক ফেসবুক ব্যবহারকারী শিক্ষামন্ত্রীর ছবি দিয়ে স্ট্যাটাসে লেখেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের ৫০০তম দিন পূর্ণ হলো আজ। ১০০০তম দিনের মাইলফলক দেখার জন্য আসেন সবাই আপার (শিক্ষামন্ত্রী) জন্য দোয়া করি। এস বি আবির নামে আরেকজন লেখেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের আজ ৫০০তম দিন পূর্ণ হলো।

মুনির হোসেন নামে আরেকজন লেখেন, শিক্ষা জাতির মেরুদণ্ড। কিন্তু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের ৫০০তম দিন পূর্ণ হলো আজ। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের ৫০০তম দিন পূর্ণ উপলক্ষে ফেসবুকে গতকাল অনেকেই এমন অভিনন্দন জানিয়েছেন। তবে এ নিয়ে দেশের কোন সংবাদ মাধ্যম কোন ধরণের প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়নি।

তথ্যটি সঠিক?

না। তথ্যটি সঠিক নয়। গতকাল বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) ছিল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের ৪৯৩তম দিন। আর এক সপ্তাহ পর অথ্যাৎ আগামী বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) পূর্ণ হবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের ৫০০তম দিন।

শিক্ষা ও শিশু রক্ষা আন্দোলন-শিশির নামে একটি সংগঠন বলছে, দেশে একটানা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের ৫০০তম দিন হতে চলেছে আগামী ২৯ জুলাই। সংগঠনটি বলছে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় শিক্ষা ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ধ্বংসপ্রায়। শিক্ষার্থীদের আত্মহত্যা, হতাশা ও নেশা বাড়ছে। বন্ধের ক্ষেত্রে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে সবার শেষে এবং খোলার ক্ষেত্রে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে সবার আগে— ইউনিসেফ ও ইউনেস্কো ঘোষিত এই নীতির ভিত্তিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা ও তারিখ ঘোষণা করতে হবে। এ দাবি নিয়ে গত ১৭ জুলাই জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে শিক্ষক-শিক্ষার্থী-অভিভাবক সমাবেশও করেছে সংগঠনটি।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ

x