চাঁদের বুকে আছড়ে পড়ছে স্পেসএক্সর রকেট

স্পেসএক্স
প্রায় সাত বছর মহাশূন্যে নিয়ন্ত্রণহীনভাবে ঘোরার পর এবার চাঁদে আছড়ে পড়তে যাচ্ছে ইলন মাস্ক পরিচালিত স্পেসএক্স-এর একটি রকেট।  © সংগৃহীত

চাঁদের বুকে আছড়ে পড়তে যাচ্ছে ইলন মাস্ক পরিচালিত স্পেসএক্স-এর একটি রকেট। প্রায় সাত বছর মহাশূন্যে নিয়ন্ত্রণহীনভাবে ঘোরার পর এবার চাঁদে আছড়ে পড়তে যাচ্ছে। মহাকাশ পর্যবেক্ষকরা বলছেন, প্রায় চার মেট্রিক টনের এই রকেট আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে সেকেন্ডে ২ দশমিক ৫৮ কিলোমিটার গতিতে চাঁদের গায়ে পড়বে।

২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারিতে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা থেকে একটি আবহাওয়া স্যাটেলাইট নিয়ে মহাকাশের উদ্দেশ্যে রওনা দেয় ফ্যালকন নাইন নামের এই রকেট। স্যাটেলাইটটিকে তার কক্ষপথে পাঠানোর পর এর ইঞ্জিনে গোলযোগ দিলে ইঞ্জিন ধীরে ধীরে পুড়ে গিয়ে রকেটটির একাংশ পরিত্যক্ত হয়ে যায়।

যথেষ্ট উচ্চতায় চলে যাওয়ায় পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলে ফিরে আসার মতো সক্ষমতা হারিয়ে ফেলে রকেটটি। এটি এমন এক জায়গায় গিয়ে ঠেকে যেখানে পৃথিবী ও চাঁদের মাধ্যাকর্ষণ বল আবার বিদ্যমান রয়েছে। সুতরাং ২০১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে রকেটটি একটা বিশৃঙ্খল কক্ষপথ ধরে পৃথিবী ও চাঁদের আশেপাশে ঘুরতে থাকে।

আরও পড়ুন: ফেনী কলেজ ছাত্রলীগের প্রথম নারী সম্পাদক রাত্রী

সফটওয়্যার দিয়ে পৃথিবীর আশেপাশের বস্তু, গ্রহাণু, ক্ষুদ্র গ্রহ এবং ধূমকেতুর গতিবিধি নির্ণয় করা বিল গ্রে জানান, ফ্যালকন নাইন আগামী ৪ মার্চ চাঁদের নিরক্ষরেখার কাছাকাছি একটি অঞ্চলে গিয়ে আঘাত হানবে।

'চাঁদের গায়ে এমন স্পেস জাংক আছড়ে পড়ার নজির আর আছে বলে জানা নেই আমার, বলেন গ্রে। তবে সংঘর্ষটি পৃথিবী থেকে দেখা যাওয়ার সম্ভানা খুবই কম বলে জানিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, পৃথিবী থেকে চাঁদের যে অংশ দেখা যাচ্ছে তার অপর পাশে ঘটনাটি ঘটবে। আর এপাশে ঘটলেও আমরা দেখতে পেতাম কি না তা নিয়ে সন্দেহ আছে। কারণ অমাবস্যার কয়েক দিন পরই ঘটনাটি ঘটবে।

আরও পড়ুন: চাকরি হারালেন মাদকাসক্ত ৩৭ পুলিশ

এরআগে, যুক্তরাষ্ট্রের কেপ ক্যানাভেরালে লঞ্চ প্যাডেই বিধ্বস্ত হয়েছে স্পেসএক্স-এর পরিচালিত একটি রকেট, সঙ্গে বিস্ফোরিত হয়েছে এর সঙ্গে থাকা ফেইসবুকের একটি স্যাটেলাইটও। উৎক্ষেপণের আগে এটি নিয়ে পরীক্ষা চালানো হচ্ছিল।

রকেটটিতে জ্বালানী ভরার সময় কোনো একটা 'ঝামেলা' হয়ে যায় বলে জানিয়েছে উদ্ভাবনী প্রযুক্তির ধারণা দেওয়ার জন্য খ্যাত মার্কিন ধনকুবের ও প্রযুক্তিবিদ ইলন মাস্ক-এর প্রতিষ্ঠানটি। তবে, এ ঘটনায় কেউ কোনো আঘাত পাননি বলেও জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।


x

সর্বশেষ সংবাদ