সিদ্ধান্ত বদল, বন্ধ হচ্ছে না অবৈধ মোবাইল ফোন

বন্ধ হচ্ছে না অবৈধ মোবাইল ফোন
বন্ধ হচ্ছে না অবৈধ মোবাইল ফোন  © ফাইল ফটো

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার জানিয়েছেন, অনিবন্ধিত বা অবৈধ মোবাইল ফোন যেকোনো নেটওয়ার্কে চালু হলেও তা বন্ধ করা হচ্ছে না। মানুষের ভোগান্তি এড়াতে আমরা পাইকারি হারে মোবাইল ফোন বন্ধ করছি না। বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) গণমাধ্যমকে তিনি এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী বলেন, এখন থেকে মোবাইল ফোন সেট চালু করলে স্বয়ংক্রিভাবে তার নিবন্ধন হবে। তবে ফোনটি অবৈধ হলেও বন্ধ হবে না। ১ অক্টোবরের থেকে কোনো মোবাইল ফোন চালু করতে গিয়ে অবৈধ চিহ্নিত হলে তা বন্ধের যে প্রক্রিয়া শুরু হয়েছিল, তা আর হচ্ছে না। সরকার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করেছে।

তিনি বলেন, আমরা চাই না মোবাইল ফোনের নিবন্ধন করতে গিয়ে জনগণের ভোগান্তিতে পড়ুক। এজন্যই মোবাইল ফোন সেটের নিবন্ধন স্বয়ংক্রিয়ভাবে করা হবে। আমরা দেখেছি, মোবাইল ফোন সেটের নিবন্ধন করতে গিয়ে গ্রামের সাধারণ মানুষ বিশেষ করে যিনি ফিচার ফোন ব্যবহার করেন, তিনিই বেশি ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন। প্রবাসীরাও ভোগান্তি পোহাচ্ছেন।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, এনইআইআর সিস্টেমে আমরা নিবন্ধিত সেটগুলোর ডাটাবেজ তৈরি করছি। ভবিষ্যতে এনবিআর যদি চায় আমরা তাদের সরবরাহ করতে পারবো। তবে আমরা এ মুহূর্তে পাইকারি হারে সেটগুলো বন্ধ করছি না।

প্রসঙ্গত, দেশের বাজারে প্রায় ৫৫ লাখ অবৈধ মোবাইল ফোন ছিল। সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানিয়েছিল, ওইসব ফোন নেটওয়ার্কে সচল হবে না। সরকারের সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের ফলে এখন এসব ফোন চালু হবে বলে সংশ্লিষ্টরা আশাবাদী।

ইতোমধ্যে বন্ধ হওয়া সেটগুলোর কী হবে এমন প্রশ্নে মোস্তাফা জব্বার বলেন, বন্ধ করার আগে গ্রাহকদের এসএমএস পাঠানো হয়েছে। তারা নিবন্ধনের আওতায় এসেছে বলে জানান তিনি।

এর আগে, গত ১ জুলাই দেশে পরীক্ষামূলকভাবে ন্যাশনাল ইকুইপমেন্ট আইডেনটিটি রেজিস্ট্রার ব্যবস্থা চালু হয়। ১ অক্টোবর থেকে ব্যবস্থাটি আনুষ্ঠানিকভাবে চালু করে বিটিআরসি। ব্যবস্থাটি চালুর পর অবৈধভাবে আনা মুঠোফোন শনাক্ত করা হচ্ছিল। সেসব মুঠোফোন প্রমাণ দিয়ে নিবন্ধনের জন্যও বলা হচ্ছিল।


মন্তব্য

x

সর্বশেষ সংবাদ