রোটার‍্যাক্ট ট্যালেন্ট হান্টের টপ গ্লাডিয়েটর হলেন লামিয়া

রোটার‍্যাক্ট ট্যালেন্ট হান্টের টপ গ্লাডিয়েটর হলেন লামিয়া
রোটার‍্যাক্ট ট্যালেন্ট হান্ট প্রতিযোগিতা  © টিডিসি ফটো

দীর্ঘ ৬২ দিনের যাত্রা শেষে শুক্রবার (২২ অক্টোবর) চট্টগ্রামের রোটারি সেন্টারে অনুষ্ঠিত রোটার‍্যাক্ট ট্যালেন্ট হান্ট প্রতিযোগিতার গ্লাডিয়েটর্স রাউন্ডে ১ম গ্লাডিয়েটর অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী নুর-ই- সালমা লামিয়া। এতে টাইটেল স্পনসর হিসেবে ছিলেন অনলাইন বিক্রয় প্রতিষ্ঠান জালসান। এছাড়া ২য় গ্লাডিয়েটর এওয়ার্ড অর্জন করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মোহাম্মদ আনিস এবং ৩য় গ্লাডিয়েটর এওয়ার্ড অর্জন করেন আন্তর্জাতিক ইসলামিক বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রামের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী নুর ফাতেমা আকতার রিমি।

সেইসঙ্গে শ্রেষ্ঠ দল হিসেবে নির্বাচিত হন টিম গ্লাডিয়েটর্স অব বন্দর। যার টিম লিডার হিসেবে ছিলেন এশিয়ান মহিলা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফজিলাতুন নেসা চৌধুরী এবং টিম মেম্বার হিসেবে ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী নূর-ই-সালমা লামিয়া এবং মহসিন কলেজের শিক্ষার্থী মোহাম্মদ সামিউল আলম।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রখ্যাত সাংবাদিক ও রোটারিয়ান অতীত সভাপতি জনাব ওসমান গণি মনসুর। প্রধান বিচারক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রোটারি ক্লাব অব ইসলামাবাদ এর সাবেক সভাপতি রোটারিয়ান মুসলিম উদ্দিন এবং বিচারক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রোটার‍্যাক্ট ক্লাব অব ইসলামাবাদ এর সাবেক সভাপতি রোটার‍্যাক্টর ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল মান্নান আসিফ এবং সদ্য সাবেক সভাপতি রোটার‍্যাক্টর মোহাম্মদ ফজলে রাব্বি সিনান। আর মডারেটর হিসেবে ছিলেন সহ-সভাপতি রোটার‍্যাক্টর ইন্তিসারুল আজিজ।

ক্লাবের ৭৬৫তম নিয়মিত সভার অংশ হিসেবে এই প্রোগ্রামের ঘোষণা করেন রোটার‍্যাক্ট ক্লাব অব ইসলামাবাদ এর সভাপতি রোটার‍্যাক্টর শাহাদাৎ হোসাইন। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন রোটার‍্যাক্ট ট্যালেন্ট হান্ট-২০২১ এর চেয়ারম্যান ক্লাবের সচিব রোটার‍্যাক্টর মুনযির এম সা'দ।

উল্লেখ্য, রোটার‍্যাক্ট মূল্যবোধ ও উদ্দেশ্য এবং নতুন রোটার‍্যাক্টর বৃদ্ধির সংকল্পে প্রথম বারের মতো রোটার‍্যাক্ট জেলা ৩২৮১ এবং ৩২৮২ এর রোটার‍্যাক্টর ও অতিথিদের নিয়ে আয়োজিত হয় রোটার‍্যাক্ট ট্যালেন্ট হান্ট ২০২১। ক্লাবের সচিব রোটার‍্যাক্টর মুনযির এম সা'দ এর পরিকল্পনা ও উদ্যোগে অনুষ্ঠিত রোটার‍্যাক্ট ট্যালেন্ট হান্ট এর কো-চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন রোটার‍্যাক্টর সাজ্জাদ সুলতান, কো-অর্ডিনেটর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন রোটার‍্যাক্টর সাঈদ আনোয়ার জিহাদ এবং প্রোগ্রাম এডভাইজর হিসেবে ছিলেন সদ্য অতীত সভাপতি রোটার‍্যাক্টর ফজলে রাব্বি সিনান এবং সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন সভাপতি রোটার‍্যাক্টর শাহাদাৎ হোসাইন।

মূলত রোটার‍্যাক্ট ট্যালেন্ট হান্ট ৩টি রাউন্ডের মাধ্যমে সেরা প্রতিযোগীদের নির্বাচিত করে। সেগুলো হলো ওয়ারিয়র্স রাউন্ড, জায়ান্ট রাউন্ড এবং গ্লাডিয়েটর্স রাউন্ড। বিগত ২০ সেপ্টেম্বর থেকে অনলাইনে প্রায় ১০০জন প্রতিযোগী ওয়ারিয়র্স রাউন্ড শুরু হয় এবং ৩০ সেপ্টেম্বর চূড়ান্ত প্রতিযোগিতার মাধ্যমে সেরা ২৭ জন ওয়ারিয়র্স নির্বাচিত হন। তাদেরকে নিয়ে অনলাইনের পাশাপাশি কাজীর দেউড়িতে অবস্থিত চট্টগ্রাম রোটারি সেন্টারে ২য় পর্যায়ের জায়ান্ট রাউন্ড অনুষ্ঠিত হয়।

গত ১২ অক্টোবর অনুষ্ঠিত চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় সেরা ১২ জনকে জায়ান্ট হিসেবে নির্বাচিত করা হয়। যাদেরকে বিভিন্ন দলে ভাগ করে প্রজেক্ট করতে দেওয়া হয় এবং গ্লাডিয়েটর্স ফাইনাল রাউন্ডে তাদের প্রজেক্ট প্রেজেন্টেশন এর মাধ্যমে শ্রেষ্ঠ দল নির্বাচন করা হয়। আর এতে সেরা টিমকে মেডেল এবং সেরা ৩জন গ্লাডিয়েটর্সকে ট্রফি এবং গিফট প্রদান করা হয়। সেইসঙ্গে সেরা ১২ জায়ান্টকে ক্রেস্ট এবং সেরা ২৭ জন ওয়ারিয়র্সকে সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়।


x