জেএমবির সঙ্গে সম্পৃক্ততা

খুবির সাবেক দুই শিক্ষার্থীকে ২০ বছর করে কারাদণ্ড

খুবির সাবেক দুই শিক্ষার্থীকে ২০ বছর করে কারাদণ্ড
  © সংগৃহীত

নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন নব্য জেএমবির সঙ্গে সম্পৃক্ত খুলনা বিশ্ববিদ্যলয়ের (খুবি) সাবেক দুই শিক্ষার্থীকে বিস্ফোরক আইনে ২০ বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। একইসঙ্গে তাদের আরও ১ লাখ টাকা করে জরিমানা ও অনাদায়ে আরও ৬ মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।
 
আজ রবিবার দুপুর খুলনার অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক এস এম আশিকুর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডিতরা হলেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবিএ বিভাগের চতুর্থ বর্ষের সাবেক শিক্ষার্থী নুর মোহাম্মদ অনিক ও পরিসংখ্যান বিভাগের চতুর্থ বর্ষের সাবেক শিক্ষার্থী মোজাহিদুল ইসলাম রাফি।

তাদের মধ্যে নুর মোহাম্মদ অনিকের বাড়ী মানিকগঞ্জে ও মোজাহিদুল ইসলাম রাফির বাড়ি বগুড়া জেলায়। রায় ঘোষণার সময় তারা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০২০ সালের ২৫ জানুয়ারি গোপন সংবাদের মাধ্যমে পুলিশ জানতে পারে নগরীর সোনাডাঙ্গা থানার পুরাতন গল্লামারী রোডের হাসনাহেনা নামে একটি বাড়ির তিন তলা ভবনের নিচতলায় উত্তর পাশের কক্ষে নিষিদ্ধ ঘোষিত সংগঠন জেএমবির কয়েকজন অবস্থান করছে। সেখানে তারা সন্ত্রাসী কার্যকালাপের পরিকল্পনা করছে। এমন খবর পেয়ে ওই দিন রাত সোয়া ৩টার দিকে পুলিশ অভিযান চালায়। এ সময় পুলিশ তাদের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ রাসায়নিক দ্রব্য ও কয়েকটি রিমোর্ট কন্ট্রোল উদ্ধার করে। 

পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে তারা নিষিদ্ধ সংগঠনের সদস্য বলে পরিচয় দেয়। এ ব্যাপারে ওই দিন রাতে সোনাডাঙ্গা থানার এসআই রোহিত কুমার বিশ্বাস বাদী হয়ে তাদের দুইজনের নামে বিস্ফোরক আইনে মামলা করেন। একই বছরের ২২ আগস্ট মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নগর গোয়েন্দা শাখার পুলিশ পরিদর্শক মো. এনামুল হক তাদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। মামলা চলাকালীন মোট ১২ জন আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন।

রাষ্ট্র পক্ষের আইনজীবী সাব্বির আহমেদ বলেন, এই দুইজনের বিরুদ্ধে আরও মামলা রয়েছে। আদালতে তারা কয়েকটি স্থানে বোমা হামলার কথাও স্বীকার করেছে। জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে। তারই ধারাবাহিকতায় আদালত অতি অল্প সময়ের মধ্যে রায় ঘোষণা করেছে। রায়ে রাষ্ট্রপক্ষ সন্তুষ্ট। দেশের অন্যান্য মামলাগুলো স্বল্প সময়ের মধ্যে শেষ হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।


x